বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হুগলির পুনরাবৃত্তি নদিয়ায়, ভুয়ো ক্লাবের নামে ৮লক্ষ টাকা গেল তৃণমূল নেতাদের পকেটে
DYFI-এফ অভিযোগপত্র
DYFI-এফ অভিযোগপত্র

হুগলির পুনরাবৃত্তি নদিয়ায়, ভুয়ো ক্লাবের নামে ৮লক্ষ টাকা গেল তৃণমূল নেতাদের পকেটে

  • এলাকাবাসী এই ক্লাব কোনওদিন দেখেননি বা শোনেননি। ক্লাব তো ক্লাব, ওই নামে কোনও গ্রামই নেই ওই এলাকায়।

হুগলির আরামবাগের পর নদিয়ার কালীগঞ্জ, ফের ভুয়ো ক্লাবকে অনুদানের টাকা দেওয়ার অভিযোগ ক্রীড়া দফতরের বিরুদ্ধে। এমনটাই অভিযোগ করেছে নদিয়া জেলা DYFI. তাদের দাবি, কালীগঞ্জের এমন ২টি ক্লাবকে টাকা দেওয়া হয়েছে যাদের বাস্তবে কোনও অস্তিত্ব নেই। আর ‘কাকতালীয় ভাবে’ ২টি ক্লাবেরই সভাপতি স্থানীয় তৃণমূল নেতা। 

কালীগঞ্জের বিডিওকে এক অভিযোগপত্রে DYFI-এর তরফে জানানো হয়েছে, রাধাকান্তপুর দক্ষিণপাড়া অগ্নিবীণা সংঘ ও রাধাকান্তপুর যুব সংঘ নামে বাস্তবে কোনও ক্লাব নেই। এলাকাবাসী এই ক্লাব কোনওদিন দেখেননি বা শোনেননি। ক্লাব তো ক্লাব, ওই নামে কোনও গ্রামই নেই ওই এলাকায়। তার পরেও এই ক্লাব ২টির নামে অনুদান তুলে নিয়ে গিয়েছেন ২ তৃণমূল নেতা। ২০১৬ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত মোট ৪ লক্ষ করে ৮ লক্ষ টাকা তোলা হয়েছে দাবি করা হয়েছে অভিযোগপত্রে। 

DYFI-এর অভিযোগপত্র
DYFI-এর অভিযোগপত্র

ক্লাবের ঠিকানা অনুসারে সেটি পানিঘাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত। সেই পঞ্চায়েতের প্রধান আউসান মণ্ডল বলেন, ‘২০১৮ সাল থেকে প্রধানের দায়িত্বে রয়েছি। আজ পর্যন্ত তো এমন কোনও ক্লাবের নাম শুনিনি।’ নদিয়া জেলা তৃণমূল সহ সভাপতি নাসিউদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন, ‘অভিযোগ যখন হয়েছে তদন্ত হওয়া উচিত।’

বলে রাখি, এর আগে হুগলির আরামবাগের একটি ক্লাবের ক্ষেত্রে একই রকম অভিযোগ উঠেছিল। অস্তিত্বহীন ক্লাবের নামে অনুদানের টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। 

 

বন্ধ করুন