বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > তৃণমূল বিধায়কের মুখে ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনী, বললেন ‘আমি একজন গর্বিত হিন্দু’
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

তৃণমূল বিধায়কের মুখে ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনী, বললেন ‘আমি একজন গর্বিত হিন্দু’

  • জানা গিয়েছে, রাখীর দিন বিকেলে প্রকাশ্যে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান দিতে শোনা যায় ঘাটালের তৃণমূল বিধায়ক শংকর দলুইকে।

রাত পোহালেই অযোধ্যায় হবে বহু প্রতীক্ষিত রাম মন্দিরের শিলান্যাস। তার আগে আবেগে ফুটছেন রামচন্দ্রের কোটি কোটি ভক্ত। তার আগেই তৃণমূল বিধায়কের দলত্যাগের জল্পনায় টানটান উত্তেজনা ঘাসফুল শিবিরে। আর জল্পনা শুরু তৃণমূল বিধায়কের মুখে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান শুনে। যে স্লোগানকে ‘গালাগালি’ বলে চিহ্নিত করেছিলেন তাঁর দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

জানা গিয়েছে, রাখীর দিন বিকেলে প্রকাশ্যে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান দিতে শোনা যায় ঘাটালের তৃণমূল বিধায়ক শংকর দলুইকে। পরে তিনি বলেন, ‘আমি গর্বিত হিন্দু’। বিধায়কের এই ২ বয়ানে তাঁর দলত্যাগের জল্পনা ছড়িয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুর জুড়ে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, রাখীর দিন বিকেলে ঘাটালের রাস্তায় সাধারণ মানুষকে রাখী পরাচ্ছিলেন কয়েকজন বিজেপি কর্মী। গেরুয়া পতাকা হাতে নিয়ে ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনী দিতে দিতে রাখী পরাচ্ছিলেন তাঁরা। তখন সেখানে এসে পড়েন বিধায়ক শংকর দলুই। পালটা ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনী দিতে শুরু করেন তিনি। 

সূত্রের খবর, সম্প্রতি ঘাটালের একটি সমবায় ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে শংকরবাবুকে। তার পর থেকেই বিজেপির সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়ছে তাঁর।

শংকরবাবু বলেন, ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনী বিজেপির একার সম্পত্তি না কি? আমি একজন গর্বিত হিন্দু। আমারও ‘জয় শ্রী রাম’ বলার অধিকার রয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাকে ২ বার বিধায়ক করেছেন। সেই দল ছাড়ব কেন?’

বন্ধ করুন