বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ফের বিদ্রোহী রবীন্দ্রনাথ, দিলেন ভোটের আগে চরম সিদ্ধান্ত গ্রহণের হুঁশিয়ারি
সিঙুরের বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য। 
সিঙুরের বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য। 

ফের বিদ্রোহী রবীন্দ্রনাথ, দিলেন ভোটের আগে চরম সিদ্ধান্ত গ্রহণের হুঁশিয়ারি

  • দলীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ফের তোপ দাগেন মাস্টামশাই। বলেন, সব জায়গায় দলের ব্লক সভাপতি নির্বাচনে স্থানীয় বিধায়কের পরামর্শ নেওয়া হয়েছে। আমি চার বারের বিধায়ক। আমার পরামর্শ নেওয়া হবে না কেন? 

করোনা থেকে সেরে উঠে ফের দলের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করলেন সিঙুরের তৃণমূল বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য। বৃহস্পতিবার নিজের বাড়িতে অনুগামীদের সঙ্গে বৈঠকের পর তিনি ঘোষণা করেন, দল তাঁর মনোনীত ব্যক্তিকে ব্লক সভাপতি না করলে কঠিন পদক্ষেপ করতে পারেন তিনি। সঙ্গে তাঁর দাবি, তৃণমূলে সৎ লোকের দাম নেই। 

এদিন সিঙুরে নিজের বাড়িতে অনুগামীদের সঙ্গে প্রায় ১ ঘণ্টা বৈঠক করেন মাস্টারমশাই। কিছুদিন আগেই করোনা সংক্রমণ কাটিয়ে উঠেছেন তিনি। এদিনের বৈঠকের পর সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানান, গোবিন্দ ধাড়াকে আমরা ব্লক সভাপতি হিসাবে কিছুতেই মানতে পারবো না। উনি আপদমস্তক দুর্নীতিগ্রস্ত। আমার বিরুদ্ধে কোনও দুর্নীতির অভিযোগ নেই। আমরা মানুষের জন্য কাজ করি, আখের গোছাতে রাজনীতি করি না। 

এর পরই দলীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ফের তোপ দাগেন মাস্টামশাই। বলেন, সব জায়গায় দলের ব্লক সভাপতি নির্বাচনে স্থানীয় বিধায়কের পরামর্শ নেওয়া হয়েছে। আমি চার বারের বিধায়ক। আমার পরামর্শ নেওয়া হবে না কেন? কেন আমার অপছন্দের লোককে ব্লক সভাপতি পদে বসাবে দল? তিনি জানান, দল অবস্থান বদল না করলে ফের বৈঠক করে বিধানসভা নির্বাচনের আগে নিজের অবস্থান জানাবেন। 

গত নভেম্বরে দলের বিরুদ্ধে প্রথম বিদ্রোহ ঘোষণা করেন রবীন্দ্রনাথবাবু। তাঁর অনুগামী মনোরঞ্জন দাসকে সরিয়ে বেচারাম মান্নার অনুগামীকে দলের ব্লক সভাপতি করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। এর মধ্যে হঠাৎ পালটা পদত্যাগের হুমকি দেন বেচারাম মান্না। তার পর দলের তরফে রবীন্দ্রনাথবাবুর সঙ্গে বোঝাপড়ার চেষ্টা হলেও কাজ যে হয়নি তা মালুম পড়ল এদিন। 

 

বন্ধ করুন