বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌দলের অন্দরে লুকিয়ে বিজেপির এজেন্ট’‌, মনোরঞ্জনের ফেসবুক পোস্টে তোলপাড়
মনোরঞ্জন ব্যাপারী, তৃণমূল বিধায়ক (ফেসবুক)
মনোরঞ্জন ব্যাপারী, তৃণমূল বিধায়ক (ফেসবুক)

‘‌দলের অন্দরে লুকিয়ে বিজেপির এজেন্ট’‌, মনোরঞ্জনের ফেসবুক পোস্টে তোলপাড়

  • এবার দলের নেতাদের একাংশের বিরুদ্ধেই বিজেপি সংস্রব এবং দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সরব হলেন তিনি।

টোটো নিয়ে তাঁকে গ্রামের রাস্তায় দেখা গিয়েছিল। মানুষের দুঃখ–দুর্দশায় মাঝরাতে তাঁর ঘুম ভেঙে যাচ্ছিল। এমনকী রাজনীতিতে আসা তাঁর ঠিক হয়নি বলেও তিনি মনে করেছিলেন। এবার দলের নেতাদের বিজেপি সংস্রব নিয়ে সরব হলেন। হ্যাঁ, তিনি বলাগড়ের তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারী। এবার দলের নেতাদের একাংশের বিরুদ্ধেই বিজেপি সংস্রব এবং দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সরব হলেন তিনি। আর তাতেই রাজ্য–রাজনীতিতে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। দু’‌দিন আগে বলাগড় বিধানসভা এলাকার গুপ্তিপাড়া–১ পঞ্চায়েতে বিজেপি–সহ অন্যান্য দল থেকে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার জন্য শয়ে শয়ে মানুষ আবেদনপত্র জমা দেন। মঞ্চ বেঁধে ওই আবেদনপত্র নেওয়ার প্রক্রিয়া নিয়েই বিধায়কের ক্ষোভ।

এই ঘটনা নিয়ে তিনি ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন। কী বলেছেন তিনি?‌ ফেসবুক পোস্টে মনোরঞ্জন লিখেছেন, ‘সবাই জানেন, শনিবার–রবিবার আমি কলকাতায় থাকি। তারপরও আমার অনুপস্থিতিতে গুপ্তিপাড়া–১ এলাকায় আমাদের দলের মধ্যে লুকিয়ে থাকা বিজেপির কয়েকজন এজেন্ট অন্য বিজেপি কর্মীদের তৃণমূল কংগ্রেসে ঢোকানোর চেষ্টা করেছেন। শোনা যাচ্ছে, এসবের পিছনে নাকি লেনদেনের একটা বড় ব্যাপারও আছে। দলের উচ্চ নেতৃত্ব এমন কোনও নির্দেশ দেননি। ওই কর্মসূচির সঙ্গে দলের যোগ নেই’। কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেসের অন্দরে কারা সেই লুকিয়ে থাকা বিজেপির এজেন্ট?‌ সে বিষয়ে খোলসা করেননি তিনি।

এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে বিধায়ক বলেন, ‘টাকা–পয়সা লেনদেনের ব্যাপার নিয়ে এলাকার মানুষ অভিযোগ করেছেন আমাকে। তাই ফেসবুকে এই পোস্ট করেছি। দলের জেলা নেতাদের জানানো হয়েছে।’ কিন্তু এই নিয়ে দলের অন্দরে জোর চর্চা শুরু হয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রে খবর, বিধায়কের কাছে জানতে চাওয়া হবে দলের অন্দরে লুকিয়ে থাকা বিজেপির এজেন্ট কারা।?‌ সেই তথ্য পাওয়ার পর তা খতিয়ে দেখা হবে এবং ব্যবস্থাও নেওয়া হবে।

বন্ধ করুন