বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Bombing: ‘‌অশান্তি বরদাস্ত করা হবে না’‌, টিটাগড় থেকে কড়া বার্তা রাজ চক্রবর্তীর
রাজ চক্রবর্তী

Bombing: ‘‌অশান্তি বরদাস্ত করা হবে না’‌, টিটাগড় থেকে কড়া বার্তা রাজ চক্রবর্তীর

  • সম্প্রতি পর পর দুটি শুটআউটের ঘটনা ঘটে। একটি ভাটপাড়ায়, দ্বিতীয়টি জগদ্দলে। আর বোমাবাজির ঘটনা ঘটে টিটাগড়ে। এই ঘটনাগুলি তাঁর কানে পৌঁছেছে। তারপরই রবিবার টিটাগড়ে তৃণমূল কংগ্রেসের একুশে জুলাইয়ের সমাবেশ উপলক্ষ্যে এক সভায় এই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ব্যারাকপুরের বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী।

বেশ কয়েকটি বোমাবাজির ঘটনা ঘটেছিল টিটাগড় এলাকায়। তা নিয়ে সরগরম হয়ে উঠেছিল রাজ্য–রাজনীতি। এবার এই বোমাবাজি–অশান্তির ঘটনা নিয়ে কড়া বার্তা দিলেন ব্যারাকপুরের বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী। একুশে জুলাইয়ের প্রস্তুতি সভায় যোগ দিয়ে কড়া বার্তা দেন তিনি। তাতে জোর চর্চা শুরু হয়েছে ওই এলাকায়।

ঠিক কী বলেছেন রাজ?‌ টিটাগড়ে একুশে জুলাইয়ের প্রস্তুতি সভায় এসে ব্যারাকপুরের বিধায়ক বলেন, ‘‌এই টিটাগড়কে কোনওভাবে অশান্ত হবে দেব না। কেউ কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে অশান্তি পাকাতে চাইছে। পিছন থেকে তারা মদত দিচ্ছে দুষ্কৃতীদের। আমি ভিডিয়ো–তে দেখেছি, বাচ্চা বাচ্চা ছেলেরা বোমা নিয়ে দৌড়চ্ছে। অশান্তি বরদাস্ত করা হবে না।’‌

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ সম্প্রতি পর পর দুটি শুটআউটের ঘটনা ঘটে। একটি ভাটপাড়ায়, দ্বিতীয়টি জগদ্দলে। আর বোমাবাজির ঘটনা ঘটে টিটাগড়ে। এই ঘটনাগুলি তাঁর কানে পৌঁছেছে। তারপরই রবিবার টিটাগড়ে তৃণমূল কংগ্রেসের একুশে জুলাইয়ের সমাবেশ উপলক্ষ্যে এক সভায় এই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ব্যারাকপুরের বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী। ইদানীং টিটাগড়ে মারধর ও বোমাবাজির ঘটনা বেড়েছে। এতে প্রচণ্ড অসন্তুষ্ট বিধায়ক।

আর কী বলেছেন বিধায়ক?‌ ওই সভায় ভাষণ দিতে গিয়ে রাজ চক্রবর্তী বলেন, ‘‌শান্ত টিটাগড়কে অশান্ত করার চেষ্টা চলছে। এর পিছনে কারও কারও মদত রয়েছে। আমি লড়াই করেই বড় হয়েছি। আমি ভয় পাই না। কয়েকজনের জন্য এই শহরকে অশান্ত হতে দেব না। গত ১৫ মাস টিটাগড়ে কোনও সমস্যা হয়নি। তাহলে কী এমন হল যে, ফের অশান্ত হয়ে উঠল এই শহর। যারা মদত দিচ্ছে, তাদের পাশে নেই তৃণমূল কংগ্রেস। পুলিশকে কড়া পদক্ষেপ নিতে বলেছি। কারও যদি কিছু সমস্যা থাকে, তা আলোচনার টেবিলে বসেই মেটানো যায়।’‌

বন্ধ করুন