বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Nadia: চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগ নদিয়ার আরও এক TMC বিধায়কের বিরুদ্ধে
বিধায়ক রুকবানুর রহমান। ফাইল ছবি

Nadia: চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগ নদিয়ার আরও এক TMC বিধায়কের বিরুদ্ধে

  • বিধায়কের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০১১ সালে এবং ২০১৬ সালে চাকরি দেওয়ার নামে টাকা তুলেছিলেন তিনি এবং তাঁর ছায়াসঙ্গী শুখদেব ব্রহ্ম। তবে টাকা নেওয়ার পরে কারও চাকরি হয়নি। অনেকেই চাকরির আশায় জমি জায়গা বিক্রি করে টাকা দিয়েছিলেন বিধায়ককে। কিন্তু চাকরি না পাওয়ার পরেও কারও টাকা তিনি ফেরত দেননি বলে অভিযোগ।

তৃণমূলের আরও এক বিধায়কের বিরুদ্ধে চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগ উঠল। এই অভিযোগ উঠেছে নদিয়ার চাপড়ার তৃণমূল বিধায়ক রুকবানুর রহমানের বিরুদ্ধে। এর আগে নদিয়ার তেহট্টের বিধায়ক তাপস সাহার বিরুদ্ধে চাকরি দেওয়ার নামে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ উঠে। তবে আরও এক বিধায়কের বিরুদ্ধে চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগ উঠতেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে। অভিযোগ, রুকবানুর রহমান চাকরি দেওয়ার নামে বেশ কয়েকজনের কাছ থেকে ছয় লক্ষ টাকা নিয়েছিলেন।

বিধায়কের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০১১ সালে এবং ২০১৬ সালে চাকরি দেওয়ার নামে টাকা তুলেছিলেন তিনি এবং তাঁর ছায়াসঙ্গী শুখদেব ব্রহ্ম। তবে টাকা নেওয়ার পরে কারও চাকরি হয়নি। অনেকেই চাকরির আশায় জমি জায়গা বিক্রি করে টাকা দিয়েছিলেন বিধায়ককে। কিন্তু চাকরি না পাওয়ার পরেও কারও টাকা তিনি ফেরত দেননি বলে অভিযোগ। জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকজন প্রতারিত ব্যক্তি ওই বিধায়কের বিরুদ্ধে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন।

যদিও এই অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন বিধায়ক। তাঁর দাবি, তাঁকে ফাঁসানোর জন্য এরকম করা হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘পঞ্চায়েত সদস্য জামশেদ আলি মণ্ডল এই অভিযোগ করেছেন। তিনি ২০২১ সালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঠিক করে দেওয়া প্রার্থীর বিরুদ্ধে ভোট করানোর চেষ্টা করেছিলেন। তৃণমূলের টিকিটের পঞ্চায়েত সদস্য হওয়া সত্ত্বেও তিনি এসব করেছেন। এসব মিথ্যা কথা বলে আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে দল জানতে চাইলে নিশ্চয়ই তার জবাব দেব।’

বন্ধ করুন