বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হচ্ছে’‌, বাড়তি নিরাপত্তার আবেদন শ্যামল মণ্ডলের
বাসন্তীর বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল।
বাসন্তীর বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল।

‘‌প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হচ্ছে’‌, বাড়তি নিরাপত্তার আবেদন শ্যামল মণ্ডলের

  • সূত্রের খবর, এই এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এখানে একুশের নির্বাচনে বিজেপি নানা প্রতিশ্রুতি দিলেও মানুষ ভরসা করতে পারেননি। তাই সাফল্য পেয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। এখন এই উন্নয়নের কাজকে কেউ বা কারা থমকে দিতে চাইছে। বিগত কয়েক মাস ধরেই নানা ঘটনায় উত্তপ্ত হয়েছে বাসন্তী।

এবার দেহরক্ষী বৃদ্ধির দাবি করলেন বাসন্তীর বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল। পুলিশ সুপারের কাছে তিনি এই আবেদন করেছেন। কারণ তাঁকে তোলাবাজরা প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ। এখন এই বিধায়কের তিনজন দেহরক্ষী রয়েছে। সেটা আরও একজন বৃদ্ধির জন্য পুলিশ সুপারের কাছে আবেদন করলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তীর বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল।

ঠিক কী অভিযোগ বাসন্তীর বিধায়কের?‌ এই বিষয়ে বিধায়ক শ্যামলের মণ্ডল বলেন, ‘‌বাসন্তী, ক্যানিং–সহ একাধিক বিধানসভা এলাকায় সরকারি কাজ এবং সংগঠনের কাজে ঘুরে বেড়াতে হয়। যেখানে অন্যায় দেখেছি প্রতিবাদ করেছি। এখন নানা ধরনের হুমকি পাচ্ছি। কিছু তোলাবাজ, মাটি মাফিয়া, দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছি। এখন প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। তাই নিরাপত্তার অভাব বোধ করছি।’‌

কেন এমন অভিযোগ উঠছে?‌ সূত্রের খবর, এই এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এখানে একুশের নির্বাচনে বিজেপি নানা প্রতিশ্রুতি দিলেও মানুষ ভরসা করতে পারেননি। তাই সাফল্য পেয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। এখন এই উন্নয়নের কাজকে কেউ বা কারা থমকে দিতে চাইছে। বিগত কয়েক মাস ধরেই নানা ঘটনায় উত্তপ্ত হয়েছে বাসন্তী। বোমা বিস্ফোরণ থেকে অস্ত্র উদ্ধার—সব ক্ষেত্রেই দুষ্কৃতীদের গ্রেফতারের দাবিতে সরব হয়েছেন বিধায়ক। অবৈধভাবে মাটি কাটার সঙ্গে যুক্তদের বিরুদ্ধেও পুলিসকে পদক্ষেপ করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। তাঁর দাবি, কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার ফলে অবৈধ মাটি কাটার কারবার ৯০ শতাংশ কমে গিয়েছে। আর তখন থেকেই নানা হুমকির মুখে পড়তে হচ্ছে।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে বাসন্তীর ফুলমালঞ্চ গ্রাম পঞ্চায়েতের সর্দার পাড়ায় বোমা বিস্ফোরণে একজনের মৃত্যু হয়। তখন শ্যামল মণ্ডল করজোড়ে আবেদন করেছিলেন যাতে বাসন্তীর মানুষ বোমা, বন্দুক ত্যাগ করেন। এমনকী অস্ত্র পুলিশের হাতে তুলে দিয়ে বাসন্তীতে শান্তি ফেরাতে আবেদন করেছিলেন বিধায়ক। এরপর থেকে তাঁকে ক্রমাগত প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

বন্ধ করুন