বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ের ঘটনা ঘটবে না পঞ্চায়েত নির্বাচনে’‌, ঘোষণা উদয়নের
দিনহাটার তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক উদয়ন গুহ৷

‘‌বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ের ঘটনা ঘটবে না পঞ্চায়েত নির্বাচনে’‌, ঘোষণা উদয়নের

  • বিরোধীরা অবশ্য মনে করছেন, এই ঘোষণার পিছনে কোনও ফন্দি রয়েছে৷ রাজ্যের ১০৮টি পুরসভার নির্বাচনের সময় দিনহাটায় ভোট হয়নি৷ কারণ, বিরোধীরা কোনও আসনেই প্রার্থী দিতে পারেনি৷

পুরসভা নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ের অভিযোগ উঠেছিল। ২০২৩ সালে পঞ্চায়েত নির্বাচন। আর কোথাও, কেউ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতবে না৷ এমনকী বিরোধীরা মনোনয়ন জমা দিতে বাধা পেলে সহযোগিতা করা হবে৷ তাই এখন থেকেই দলীয় কর্মীদের ‘অবাধ ভোটে’র প্রস্তুতি নেওয়ার পরামর্শ দিলেন দিনহাটার তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক উদয়ন গুহ৷

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ পুরসভা নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দিনহাটা পুরসভা দখলের জন্য কর্মীদের কাছে ‘ক্ষমা’ চেয়ে নিলেন উদয়ন গুহ৷ এই ঘটনায় কর্মীদের মধ্যে তৈরি হয়েছে তীব্র আলোড়ন৷ বিরোধীরা অবশ্য মনে করছেন, এই ঘোষণার পিছনে কোনও ফন্দি রয়েছে৷ রাজ্যের ১০৮টি পুরসভার নির্বাচনের সময় দিনহাটায় ভোট হয়নি৷ কারণ, বিরোধীরা কোনও আসনেই প্রার্থী দিতে পারেনি৷

ঠিক কী বলেছেন দিনহাটার বিধায়ক?‌ সম্প্রতি কর্মীসভায় উদয়ন গুহকে বলতে শোনা যায়, ‘আমাদের কিছু ভুল–ত্রুটি আছে৷ দলের পক্ষ থেকে আমি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি৷ আপনারা রাগ করে আমাদের পাশ থেকে সরে যাবেন না৷ দূরে ঠেলে দেবেন না৷ কথা দিচ্ছি, ভুল শুধরে আমরা সামনে এগোব৷ পুরসভা নির্বাচনের মতো বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ের ঘটনা ঘটবে না পঞ্চায়েত নির্বাচনে৷ শীর্ষ নেতৃত্বের নির্দেশ রয়েছে, গ্রামপঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি এবং জেলা পরিষদ—সব আসনেই ভোট হবে৷ যাঁরা মানুষের পাশে থাকবে ও মানুষের হয়ে কাজ করবেন, পঞ্চায়েতে তাঁরাই পাবেন টিকিট৷’

বিজেপি কী বলছে এই মন্তব্যে?‌ এই বিষয়ে বিজেপি বিধায়ক নিখিল রঞ্জন দে বলেন, ‘এ তো ভূতের মুখে রাম নাম৷ পুরসভা ভোটের আগে উনি হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন, পুরসভা ভোটে শাসককে ভোট না দিলে দুয়ারে প্রহার হবে৷ আতঙ্কে বিরোধীরা প্রার্থীই দিতে পারেনি৷ এখন বুঝতে পারছেন, সন্ত্রাস করে বেশিদিন মানুষকে সঙ্গে রাখা যাবে না৷ তাই নাটকের আশ্রয় নিয়েছেন৷’

বন্ধ করুন