বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > আলাপন–ইস্যুতে মুখ খুললেন অভিষেক, প্রধানমন্ত্রী–স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শাস্তির দাবি
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

আলাপন–ইস্যুতে মুখ খুললেন অভিষেক, প্রধানমন্ত্রী–স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শাস্তির দাবি

  • কড়া আক্রমণ করলেন নরেন্দ্র মোদী–অমিত শাহকে। যা নিয়ে বুধবার বারবেলায় জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

এবার আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় ইস্যুতে মুখ খুললেন ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তাই নয়, কড়া আক্রমণ করলেন নরেন্দ্র মোদী–অমিত শাহকে। যা নিয়ে বুধবার বারবেলায় জোর চর্চা শুরু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ইয়াস–পরবর্তী পর্যালোচনা বৈঠকে রাজ্যের সদ্য প্রাক্তন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় কেন ছিলেন না?‌ এই নিয়ে কারণ দর্শাতে তাঁকে শো–কজ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। যা নিয়ে এখন রাজ্য–রাজনীতি সরগরম।

আলাপন ইস্যুতে মঙ্গলবারই তাঁর কড়া শাস্তির দাবি করেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এই নিয়ে যখন তোলপাড় চলছে কেন্দ্র–রাজ্য নিয়ে তখন কড়া বার্তা দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এই প্রথম মুখ খুলে ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ বলেন, ‘‌প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধেই বিপর্যয় মোকাবিলা আইন প্রয়োগ করা উচিত। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বিরুদ্ধেও ওই আইন প্রয়োগ হোক। এমনকী নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধেও এই আইন প্রয়োগ করা উচিত।’‌ এই মন্তব্য করতেই শোরগোল পড়ে যায় রাজ্য–রাজনীতিতে।

প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, কেন এমন বললেন তিনি?‌ তাঁর এই মন্তব্যের ব্যাখ্যাদিয়ে তিনি বলেন, ‘‌উনি (আলাপন) বাংলার মানুষের জন্য কাজ করছিলেন। যিনি কাজ করছিলেন তাঁকে কেন শো–কজ! দেশে যখন করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে, তখন প্রধানমন্ত্রী রাজ্যে এসে সভা করছেন। বলছেন, এত বড় সভা আগে দেখিনি। তাই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ওই আইন প্রয়োগ হওয়া উচিত।’‌ পাথরপ্রতিমা পরিদর্শন করতে এসে সাংবাদিকদের এই কথা বলেন তিনি।

বন্ধ করুন