বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যানের কাজ শুরু রাজ্য সরকারের, প্রতিশ্রুতি দিয়ে তা রাখলেন সাংসদ দেব

ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যানের কাজ শুরু রাজ্য সরকারের, প্রতিশ্রুতি দিয়ে তা রাখলেন সাংসদ দেব

সাংসদ-অভিনেতা দেব। ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার

গ্রামবাসীরা এই কাজ দেখে ফিসফাস কথা বলতে থাকেন। অনেকেই বলতে থাকেন, এবার ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যানের কাজ হবে। গ্রামের মানুষজন দুর্ভোগ থেকে রেহাই পাবেন। দেব দা কথা দিয়ে কথা রাখলেন। আজ দেবের কাছে এটাই যেন বন প্রাপ্তি। লোকসভা নির্বাচনে ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রে প্রধান ইস্যু ছিল— ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যান। 

কথা দু’‌জনেই দিয়েছিলেন। কিন্তু মানুষ একজনকে বিশ্বাস করেছিলেন। তাই ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে জিতে আবার সাংসদ হলেন তিনি। অভিনয় জগতে ছাপ রাখার পর রাজনীতির জগতেও ছাপ রেখেছেন তিনি। তাই তো লোকসভা নির্বাচনে মানুষের রায়ে সাফল্য ঘরে এসেছে তৃণমূল কংগ্রেসের। সাংসদ হলে তিনি ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যান করবেন। এই কথা দিয়েছিলেন দীপক অধিকারী ওরফে দেব এবং হিরণ চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু মানুষ বিশ্বাস করেছিলেন দেবের কথা। আর লোকসভা নির্বাচন জেতার পরই ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যান রূপায়নের তোড়জোড় শুরু করেছেন সাংসদ দেব। আর সেখানে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিল সেচ দফতর।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরামবাগের সভায় দেবকে পাশে নিয়ে ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান গড়ে তুলবে রাজ্য সরকার বলে কথা দেন। এটাই ছিল দেবের দাবি। তাহলেই তিনি লোকসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এমন কথাই জানিয়েছিলেন তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্বকে। তারপর নির্বাচনের সময়টা পেরিয়ে ফলাফল সামনে আসতেই হাসি চওড়া হল দেবের। তারপরই ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যান নিয়ে ১২ জুন সেচ দফতরের সঙ্গে বৈঠকে বসেন ঘাটালের সাংসদ দেব। সংশ্লিষ্ট বৈঠকে ঠিক হয়েছিল ঘাটালের বন্যার জলের চাপ কমাতে দাসপুরের দুই সেচ খালকে গভীর করে খনন করা হবে। আর ওই বৈঠকের ১০ দিনের মাথায় সেচ দফতরের উচ্চপদস্থ অফিসাররা আজ, শনিবার সবটা দেখতে আসেন দাসপুরে।

আরও পড়ুন:‌ হাওড়া–বালি পুরসভার নির্বাচন কবে হতে চলেছে? মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকের পর স্পষ্ট হবে দিনক্ষণ

ঘাটালের মানুষ যে দেবকে বিশ্বাস করে ভুল করেনি সেটা এই কাজের মধ্যে দিয়েই প্রমাণিত। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাসপুর ১ নম্বর ব্লকের নানা এলাকা অফিসাররা ঘুরে দেখলেন। সেচ দফতরের অফিসাররা কোথা থেকে কাজ শুরু করবেন তা চিহ্নিত করেন। এই পরিদর্শনের সময় উপস্থিত ছিলেন ঘাটাল দাসপুরের একাধিক তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্ব। এখানে আসেন জেলা সেচ দফতরের একাধিক অফিসার। প্রতিনিধি দলটি আজ, শনিবার দাসপুরের চন্দেশ্বর খালের মুখ থেকে শুরু করে দাসপুরের সুরতপুর পর্যন্ত এলাকা খতিয়ে দেখেন। প্রায় ৫ কিলোমিটার প্রস্তাবিত খাল কাটার বিষয়টি খতিয়ে দেখলেন সেচ দফতরের প্রতিনিধিদল।

গ্রামবাসীরা এই কাজ দেখে ফিসফাস কথা বলতে থাকেন। অনেকেই বলতে থাকেন, এবার ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যানের কাজ হবে। গ্রামের মানুষজন দুর্ভোগ থেকে রেহাই পাবেন। দেব দা কথা দিয়ে কথা রাখলেন। আজ দেবের কাছে এটাই যেন বন প্রাপ্তি। লোকসভা নির্বাচনে ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রে প্রধান ইস্যু ছিল— ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যান। এই ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যানকে হাতিয়ার করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপি। কেন্দ্রের মুখাপেক্ষী না হয়ে রাজ্য সরকারই ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যান করবে বলে নির্বাচনী সভায় প্রতিশ্রুতি দেন দেব। সেদিন সঙ্গে ছিলেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। আর ঘাটালে দেব জেতার পরেই মাস্টারপ্ল্যান রূপায়ণের কাজ শুরু হল। যা দেখে খুশি ঘাটালবাসী।

বাংলার মুখ খবর

Latest News

‘‌আমাকে কি পেতে চাও?‌’‌ ভেসে উঠল ভিডিয়ো কলে নগ্ন ছবি, প্রতারণা চক্র ফাঁস পুলিশের কেন নিজের গড়ে পরাজয় হয়েছে? সোনিয়ার কাছে রিপোর্ট দিলেন অধীর, অমত শীর্ষ নেতারা পরকিয়ার জেরে গর্ভবতী, প্রসবের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে সদ্যোজাতকে পুঁতে ফেললেন মা SA20-তে MI কেপটাউনের হয়ে খেলবেন বেন স্টোকস! কত টাকা পাবেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক? ‘আম্বানিদের সঙ্গে ১১বছর ছিলাম, অনন্তের জন্য নিবেদিত প্রাণ ছিল, আজ ওরই বিয়েতে…’ 'তাঁকে গুজরাট থেকে আনেন নন-বায়োলজিকাল PM', UPSC প্রধানের পদত্যাগে তোপ কংগ্রেসের অবশেষে রাজ্য সরকারি সংস্থার চাকরির পরীক্ষায় বাধ্যতামূলক বাংলা, বরাদ্দ ১০ মার্কস আর কি আশা করত? হঠাৎ কোহলি-শাস্ত্রীর বিরুদ্ধে সরব হলেন মহম্মদ শামি বিরাট-রোহিত নেটে ব্যাট করতে চান না তাঁর বিরুদ্ধে! রহস্য ফাঁস মহম্মদ শামির এবার সৌমিত্র-মৌসুমীর জুতোয় পা গলাচ্ছেন গৌরব-দেবচন্দ্রিমা,নতুন রূপে আসছে পরিণীতা

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.