বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌তাঁর কাছে সবার কৃতজ্ঞ থাকা উচিত’‌, গঙ্গাসাগর নিয়ে মমতার প্রশংসায় কল্যাণ
কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

‘‌তাঁর কাছে সবার কৃতজ্ঞ থাকা উচিত’‌, গঙ্গাসাগর নিয়ে মমতার প্রশংসায় কল্যাণ

  • এবার আবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভূয়সী প্রশংসা করলেন তিনি। হ্যাঁ, তিনি শ্রীরামপুরের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার তিনি টুইট করলেন।

সম্প্রতি দলের অন্দরে কোণঠাসা হয়েছিলেন তিনি। কারণ তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘ব্যক্তিগত মত’ নিয়ে প্রকাশ্যে প্রশ্ন তুলে দিয়েছিলেন। তবে তিনি যে ঠিক বলেছেন, সেটা স্বীকার করেছেন স্বয়ং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তাতে খানিকটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন তিনি। এবার আবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভূয়সী প্রশংসা করলেন তিনি। হ্যাঁ, তিনি শ্রীরামপুরের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার তিনি টুইট করলেন।

ঠিক কী লিখেছেন কল্যাণ?‌ এদিন টুইটে বর্ষীয়ান আইনজীবী তথা সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় লেখেন, ‘গঙ্গাসাগর মেলা আটকানোর জন্য বিভিন্ন মহল থেকে অনেক চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গোটা বিশ্বকে দেখিয়ে দিলেন, সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করেই কী ভাবে গঙ্গাসাগর আয়োজন করা যায়। এই কারণে তাঁর কাছে সবার কৃতজ্ঞ থাকা উচিত।’

এই টুইট তিনি ট্যাগ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং বাংলার রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে। সেখানে তিনি লেখেন, ‘আমাদের প্রিয় মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী যা করে দেখিয়েছেন, তার জন্য প্রত্যেকেরই কৃতজ্ঞ হওয়া উচিত।’‌ এই টুইট নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে। কারণ একদিকে তিনি তাঁর বিরোধীদেরও বার্তা দিলেন। আবার কেন্দ্রীয় সরকারকেও বার্তা দিলেন।

উল্লেখ্য, এই কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে কয়েকদিন আগে বলতে শোনা গিয়েছিল, ‘দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেখানো পথই আমার পথ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেখানো পথে হেঁটেই আজ আমরা এখানে এসে পৌঁছেছি। আমার নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই। আর কাউকে নেতা মানি না।’ এই নিয়ে রাজ্য–রাজনীতিতে কম ঝড় ওঠেনি। পরে অভিষেকের স্বীকারোক্তিতে চ্যাপ্টার ক্লোজড হয়।

বন্ধ করুন