বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘এ বন্ধ করতেই হবে, আবাস যোজনার টাকা পেতে অন্যকে এক পয়সাও না’, সতর্কবার্তা মহুয়ার
কৃষ্ণনগরের তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। ফাইল ছবি

‘এ বন্ধ করতেই হবে, আবাস যোজনার টাকা পেতে অন্যকে এক পয়সাও না’, সতর্কবার্তা মহুয়ার

  • সরকারি আবাস যোজনায় বাড়ি পাওয়ার জন্য টাকা চাওয়া হচ্ছে, এমনই অভিযোগ সম্প্রতি কানে যায় তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের।

সরকারি আবাস যোজনায় বাড়ি পাওয়ার জন্য দিতে হয় টাকা। এই অভিযোগ বহুদিনের। এই সংক্রান্ত অভিযোগ সম্প্রতি কানে যায় তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের। আর তারপরই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সাধারণ জনগণকে সতর্ক করে দিতে তিনি বিশেষ বার্তা দিলেন। তিনি এক ভিডিয়ো বার্তায় সরকারি আবাস যোজনায় বাড়ি পাওয়ার জন্য কোনও দালালকে টাকা দিতে বারণ করেন।

সাধারণ মানুষকে সতর্ক করতে পুরোনো একটি বার্তা ফের পোস্ট করেন মহুয়া। ভিডিয়ো বার্তায় কৃষ্ণনগরের সাংসদকে বলতে শোনা যায়, ‘কৃষ্ণনগর লোকসভা ও করিমপুর বিধানসভার প্রতিটি ব্লকে আবাস যোজনার অধীনে ঘর গড়ার জন্য টাকা এসেছে। এই প্রকল্পের নামে নিজেদের পকেট ভরাতে কিছু অসাধু মানুষ চেষ্টা করছে। তারা বাড়ি বাড়ি পৌঁছে গিয়ে বলছে, ঘরের জন্য বরাদ্দ এসেছে। তা পাওয়ার জন্য তাঁদের টাকা দিতে হবে। বাংলা আবাস যোজনা বা প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার তালিকায় কারোর নাম থাকলে তা বাদ দেওয়ার ক্ষমতা কারও নেই। এদিকে যদি তালিকায় নাম থাকে তাহলে সেই নাম ঢোকানোর ক্ষমতাও কারোর নেই। তাই প্রকল্পের লাভ পেতে কাউকে এক পয়সাও দেবেন না।’

মহুয়া মৈত্রকে ভিডিয়োতে আরও পরামর্শ দিতে দেখা যায়, ‘কেউ টাকা চাইতে এলে ভয় পাবেন না। তখনই থানায় গিয়ে ওসি বা বিডিও এবং সাংসদের দফতরে অভিযোগ জানান। এই বিষয়টা (টাকা চাওয়া) বন্ধ করতেই হবে এবং তার জন্য জনসাধারণকেই এগিয়ে আসতে হবে। কেউ এসে যদি টাকার চায়, তার নামে অভিযোগ করুন। সে যে কোনও দলের ব্যক্তি হতে পারে। অভিযোগ করুন। নাম না জানালে ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হয় না।’

বন্ধ করুন