বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌চিন্তা করো না, আমি তো আছি’‌, আহত শিশুর শুশ্রষা করলেন সাংসদ মহুয়া মৈত্র
শিশুটির প্রাথমিক চিকিৎসা করলেন সাংসদ।

‘‌চিন্তা করো না, আমি তো আছি’‌, আহত শিশুর শুশ্রষা করলেন সাংসদ মহুয়া মৈত্র

  • বুধবার ইদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের উদ্দেশে বেরিয়েছিলেন মহুয়া মৈত্র। এক কর্মীর বাড়ি থেকে বেরিয়ে তিনি যাচ্ছিলেন করিমপুরে। কিন্তু মাঝপথে দেখতে পান এক শিশু আহত হয়ে কাঁদছেন। তখনই তিনি কনভয় থামাতে নির্দেশ দেন। এখানে দু’টি মোটরবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষে জখম হন তিনজন। তার মধ্যে একটি শিশুও ছিল।

হঠাৎ চলন্ত কনভয় থামানোর নির্দেশ দিলেন কৃষ্ণনগরের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ মহুয়া মৈত্র। তখনও সবাই বুঝতে পারেননি, কেন এমন নির্দেশ? গাড়ি থেকে নেমে এগোতেই সবাই দেখলেন‌ দুর্ঘটনায় জখম হয়েছে কাঁদছে একটি শিশু। আর সেখানেই হাজির হলেন কৃষ্ণনগরের সাংসদ মহুয়া মৈত্র। নিজে হাতে শিশুটির প্রাথমিক চিকিৎসা করলেন সাংসদ। আর আহত শিশুটিকে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থাও করলেন। বুধবার এই ঘটনাই দেখলেন করিমপুরের সেনপাড়ার বাসিন্দারা।

ঠিক কী ঘটেছে করিমপুরে? জানা গিয়েছে,‌ বুধবার ইদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের উদ্দেশে বেরিয়েছিলেন মহুয়া মৈত্র। এক কর্মীর বাড়ি থেকে বেরিয়ে তিনি যাচ্ছিলেন করিমপুরে। কিন্তু মাঝপথে দেখতে পান এক শিশু আহত হয়ে কাঁদছেন। তখনই তিনি কনভয় থামাতে নির্দেশ দেন। এখানে দু’টি মোটরবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষে জখম হন তিনজন। তার মধ্যে একটি শিশুও ছিল।

কেমন করে চিকিৎসা করলেন সাংসদ?‌ গাড়ি থেকে নেমেই তিনি ছুটে যান আহত শিশুটির কাছে। জিজ্ঞাসা করলেন, ‘‌তোমার লেগেছে?‌ চিন্তা করো না। আমি তো আছি।’‌ দুর্ঘটনায় আঘাত পেয়ে শিশুটি কাঁদছে। মহুয়া মৈত্র নিজের গাড়িতে থাকা ‘ফার্স্ট এইড কিট’ বের করে শিশুটির শুশ্রূষা করেন। শিশুটি এবং জখম শিশুটির বাবা এবং মা–কেও করিমপুর গ্রামীণ হাসপতালে চিকিৎসার জন্য পাঠিয়ে তবেই গাড়িতে ওঠেন সাংসদ।

উল্লেখ্য, এই নজির বারবার দেখা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ক্ষেত্রে। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কেও ইদানিং দেখা গিয়েছে এমন ঘটনায় পাশে দাঁড়াতে। তবে মহুয়া মৈত্রকে এভাবে প্রথমবার দেখা গেল। আর তাতে আপ্লুত শিশু ও পরিবার। এমনকী এলাকার সাংসদের এমন ভূমিকায় সবাই প্রশংসা করেছেন। এভাবে একটা শিশুর পাশে দাঁড়ানোয় সবাই ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। সংসদে, মঞ্চে মহুয়ার বাগ্মিতা আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু। এবার অন্য ভূমিকাতেও দেখা গেল তাঁকে।

বন্ধ করুন