বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হিংসা থামছে না কোচবিহারে, গভীর রাতে তুফানগঞ্জে জ্বলল তৃণমূলের পার্টি অফিস
শুক্রবার রাতে তুফানগঞ্জে জ্বলছে তৃণমূলের পার্টি অফিস। 
শুক্রবার রাতে তুফানগঞ্জে জ্বলছে তৃণমূলের পার্টি অফিস। 

হিংসা থামছে না কোচবিহারে, গভীর রাতে তুফানগঞ্জে জ্বলল তৃণমূলের পার্টি অফিস

  • তৃণমূলের অভিযোগ, রাতে তাদের পার্টি অফিসে হামলা চালায় বিজেপির ২০ – ২৫ জন দুষ্কৃতী। পার্টি অফিসে ঢুকে প্রথমে ব্যাপক ভাঙচুর করে তারা।

ভোটের ফল প্রকাশের পর থেকে হিংসা থামছে না কোচবিহার জেলা জুড়ে। আর সেই হিংসার অন্যতম উপকেন্দ্র অসম সীমান্ত লাগোয়া তুফানগঞ্জ। শুক্রবার রাতেও সেখানে পুড়ল তৃণমূলের একটি পার্টি অফিস। গভীর রাতে তুফানগঞ্চ স্টেশন লাগোয়া তৃণমূলের পার্টি অফিসটি বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। খবর পেয়ে দমকল পৌঁছনোর আগেই ভস্মীভূত হয়ে যায় সব কিছু। 

তৃণমূলের অভিযোগ, রাতে তাদের পার্টি অফিসে হামলা চালায় বিজেপির ২০ – ২৫ জন দুষ্কৃতী। পার্টি অফিসে ঢুকে প্রথমে ব্যাপক ভাঙচুর করে তারা। তার পর আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় পার্টি অফিসে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপির দাবি, তৃণমূলের লোকেরাই তাদের পার্টি অফিস জ্বালিয়ে বিজেপির নামে দোষ দিচ্ছে। 

বলে রাখি, নির্বাচনের ফলপ্রকাশের পর তুফানগঞ্জের চিলাখানায় খুন হন শাহিনুর রহমান নামে এক তৃণমূলকর্মী। পরিবারের দাবি, ফোন করে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন করা হয়েছে তাঁকে। তৃণমূলের অভিযোগ, ওই যুবককে খুন করেছে বিজেপি। 

অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপির তরফে দাবি করা হয়েছে, ওই যুবক আসলে একজন কুখ্যাত দুষ্কৃতী। দুষ্কৃতীদের গোষ্ঠীদ্বন্দে খুন হয়েছেন তিনি। তার সঙ্গে রাজনীতির কোনও যোগ নেই।

 

বন্ধ করুন