বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বিজেপি যোগদান করতে পারে কে কে? বুঝতে আজ মালদায় তৃণমূলের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

বিজেপি যোগদান করতে পারে কে কে? বুঝতে আজ মালদায় তৃণমূলের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক

  • জেলা তৃণমূল সূত্রের খবর, মালদা তৃণমূলের নেতা অম্লান ভাদুড়ি, মোয়াজ্জেন হোসেন, জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌরচন্দ্র মণ্ডল-সহ অনেকেই শুভেন্দুর অনুগামী। এমাসের শুরুর দিকে তাদের অনেকে দল ছাড়তে চলেছেন বলেও খবর ছড়ায়।

শুভেন্দু অধিকারীর দলত্যাগের পর কোন কোন নেতা বিজেপিতে যোগদান করতে পারেন তা বুঝতে মঙ্গলবার বৈঠকে বসছেন মালদা জেলা তৃণমূল সভানেত্রী মৌসম বেনজির নুর। সেই বৈঠকে জেলা কমিটির সমস্ত সদস্যকে হাজির থাকতে অনুরোধ করা হয়েছে। বৈঠকে হাজির থাকবেন প্রশান্ত কিশোরের সংস্থার কর্মীরাও।

মঙ্গলবার বিকেল ৪টেয় মালদা জেলা তৃণমূল সদর কার্যালয়ে বসবে তৃণমূলের বৈঠক। তাতে জেলা তৃণমূলের কে কে বিজেপিতে যোগদান করতে পারেন তা বোঝার চেষ্টা হবে। দীর্ঘদিন মালদা জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। সেই সুবাদে জেলা তৃণমূলের বহু নেতার সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ। এমনকী জেলা তৃণমূল সভানেত্রী মৌসমকেও কংগ্রেস থেকে তৃণমূলে যোগদান করিয়েছিলেন তিনিই। 

জেলা তৃণমূল সূত্রের খবর, মালদা তৃণমূলের নেতা অম্লান ভাদুড়ি, মোয়াজ্জেন হোসেন, জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌরচন্দ্র মণ্ডল-সহ অনেকেই শুভেন্দুর অনুগামী। এমাসের শুরুর দিকে তাদের অনেকে দল ছাড়তে চলেছেন বলেও খবর ছড়ায়। এমনকী শুভেন্দু বিজেপিতে যাচ্ছেন নিশ্চিত হওয়ার পর কলকাতায় জেলার নেতাদের নিয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যে বৈঠক ডেকেছিলেন তাতে হাজির ছিলেন না মৌসম। এর পর তিনি তৃণমূল থেকে পদত্যাগ করেছেন বলে জানা যায়। পরে সেই দাবি খণ্ডন করেন মৌসম নিজে। 

সূত্রের খবর, মালদা জেলায় তৃণমূলের সংগঠন কখনোই তেমন মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেনি তৃণমূলের সংগঠন। শুভেন্দুর উদ্যোগে জেলা পরিষদ দখল হলেও নীচুতলায় এখনো সেখানে বাম – বিজেপি ও কংগ্রেসের রমরমা। এমন করুণ পরিস্থিতির মধ্যেও সেখানে গোষ্ঠীদ্বন্দে বিরাম নেই। যার জেরে এখনো বহু জায়গায় অঞ্চল কমিটি পর্যন্ত বানাতে পারেনি তৃণমূল।

 

বন্ধ করুন