বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শিল্পাঞ্চল এলাকায় তৃণমূল কর্মীকে কুপিয়ে খুন, অপরাধী ছিল সে, দাবি বিজেপি’‌র
মৃত যুবক
মৃত যুবক

শিল্পাঞ্চল এলাকায় তৃণমূল কর্মীকে কুপিয়ে খুন, অপরাধী ছিল সে, দাবি বিজেপি’‌র

  • বুধবার মধ্যরাতে রক্তাক্ত হল উত্তর ২৪ পরগণা জেলার জগদ্দল এলাকা। এখানে তৃণমূল কর্মীকে খুনের ঘটনায় ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল জেলার রাজনীতি।

বুধবার মধ্যরাতে রক্তাক্ত হল উত্তর ২৪ পরগণা জেলার জগদ্দল এলাকা। এখানে তৃণমূল কর্মীকে খুনের ঘটনায় ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল জেলার রাজনীতি। এই জেলার লোকসভা কেন্দ্র ব্যারাকপুর। যা ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে জয়ী হয়েছে বিজেপি। তৃণমূল করার অপরাধে বলি হয়েছেন তরতাজা ওই যুবক বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় বিজেপি’‌র যোগ রয়েছে বলে দাবি তৃণমূলের।

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত যুবকের নাম আকাশ প্রসাদ। বয়স ২৪। ঘটনার জেরে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। এই ঘটনা ঘটার আগে আকাশ মধ্যরাতে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিল বলে পরিবার জানিয়েছে। বুধবার গভীর রাতে জগদ্দলের পালঘাট রোড এলাকায় চপার দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয় তাঁকে। ব্যাপক বোমাবাজিও করা হয় এলাকায়। উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। খবর পাওয়া মাত্র ঘটনাস্থলে যায় জগদ্দল থানার পুলিশ। আকাশের দেহ উদ্ধার করে পাঠায় ময়নাতদন্তে। তবে আকাশের বিরুদ্ধে অপরাধের রেকর্ড আছে।

আকাশ প্রসাদের বাবা অরুণ প্রসাদ জানান, মাঝরাতে তোলাবাজ আকাশ সাউয়ের ফোন পেয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় আকাশ। এলাকায় যাতে উত্তেজনা না ছড়ায় সেই কারণে মোতায়েন করা হয় পুলিশ। ছেলের মৃত্যুর খবর পাওয়ার পরই কান্নায় ভেঙে পড়ে পরিবার। অভিযোগ করে, সোমনাথ সোমের অনুগামী হওয়ায় আকাশ সাউ নামে ওই দুষ্কৃতী খুন করেছে তাঁদের ছেলেকে। যদিও গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে খুনের তত্ত্ব মানতে নারাজ সোমনাথ সোম। তাঁর অভিযোগ, ঘটনার নেপথ্যে হাত রয়েছে বিজেপি’‌র। তবে দলেরই যুগ্ম আহ্বায়ক সঞ্জয় সিং জানান, তৃণমূলের সঙ্গে কোনও সম্পর্ক ছিল না আকাশ প্রসাদের। তোলাবাজি করতে গিয়ে সাধারণ মানুষের হাতে গণপিটুনি খেয়ে মারা গিয়েছে ওই দুষ্কৃতি।

বিজেপি’‌র বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন বারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। তাঁর কথায়, ‘‌তৃণমূল সত্যকে গোপন করে বিভ্রান্তমূলক বিবৃতি দিচ্ছে। মৃত আকাশ দুষ্কৃতীমূলক কার্যকলাপে জড়িত বলেই জানতাম। আর আকাশ ছিল বড় তোলাবাজ এবং মাদক পাচারের সঙ্গে জড়িত। তার লম্বা অপরাধের রেকর্ড রয়েছে। সে তৃণমূলের হয়ে কাজ করত। এই ঘটনায় বিজেপি’‌র কোনও যোগ নেই।’‌

বন্ধ করুন