বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হাবরায় তৃণমূল থেকে বিজেপিতে শ'য়ে শ'য়ে
সোমবার হাবরায় দিলীপ ঘোষের হাত থেকে বিজেপির ঝান্ডা ধরছেন তৃণমূল কর্মীরা
সোমবার হাবরায় দিলীপ ঘোষের হাত থেকে বিজেপির ঝান্ডা ধরছেন তৃণমূল কর্মীরা

হাবরায় তৃণমূল থেকে বিজেপিতে শ'য়ে শ'য়ে

  • সোমবার ছিল হাবরা ও অশোকনগর কল্যাণগড় পুরসভা এলাকায় বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠক।

খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের বিধানসভা কেন্দ্র হাবরায় তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দিলেন কয়েকশ মানুষ। সোমবার ছিল হাবরা ও অশোকনগর কল্যাণগড় পুরসভা এলাকায় বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠক। পুরভোটের প্রচারে ঝাঁপানোর আগে সেখানে দলের কর্মীদের ভোকাল টনিক দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেই অনুষ্ঠানেই বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নেন ২০০ তৃণমূলকর্মী।

লোকসভা ভোটের নিরিখে হাবরা ও অশোকনগর কল্যাণগড়, দুই জায়গাতেই চাপ আছে তৃণমূলের। সেখানেই দলে বড় ভাঙন ধরাল বিজেপি। দলবদলকারীদের দাবি, তৃণমূলে গণতন্ত্র নেই। কর্মীদের কথা শোনেন না নেতারা। তাই বিজেপিতে যোগদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা।

এদিন বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নেওয়া কর্মীদের স্বাগত জানিয়েছেন বিজেপির উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সভাপতি শঙ্কর চক্রবর্তী। তিনি বলেন, ‘হাবরা ও অশোকনগরে মূলত উদ্বাস্তুদের বাস। CAA এনে নরেন্দ্র মোদী তাদের কী উপকার করেছেন তা তাঁরা জানেন। তৃণমূল মানুষকে বোকা বানানোর চেষ্টা করলেও কাজ হচ্ছে না। তাই উদ্বাস্তু অধ্যুষিত এলাকায় মানুষ দলে দলে বিজেপিতে আসছে।’

দলবদল নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুলতে চাননি তৃমমূলের কোনও নেতা। নাম না প্রকাশের শর্তে এক নেতা বলেন, ‘সবার পরিণতি ভাটপাড়ার মতো হবে।’


বন্ধ করুন