বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‌শহিদ সমাবেশে নেত্রীর বক্তব্য শুনতে এলে মিলবে ইদের শিমাই–লাকচা, জোর চর্চা
তৈরি করা হয়েছে বিরাট প্যান্ডেল।
তৈরি করা হয়েছে বিরাট প্যান্ডেল।

‌শহিদ সমাবেশে নেত্রীর বক্তব্য শুনতে এলে মিলবে ইদের শিমাই–লাকচা, জোর চর্চা

  • তবে এই উদ্যোগ নিয়েও অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন। করোনা আবহে এটা করা কী উচিত?‌

আর কিছুক্ষণের মধ্যেই শুরু হয়ে যাবে হাইভোল্টেজ ২১ জুলাই। তৃণমূল কংগ্রেসের ভার্চুয়াল সভার প্যান্ডেলে দিদির বক্তব্য শুনতে আসলে দেওয়া হবে ইদের শিমা–লাকচা। কারণ আজকে আবার ইদ পড়েছে। সুতরাং রথ দেখা কলা বেচা দুই হবে বলে মনে করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এই উদ্যোগ নিয়েছেন ভাঙড়ের তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সাবির শেখ। তার জন্য সকাল থেকেই চলছে শেষ মূহূর্তের প্রস্তুতি। তবে এই উদ্যোগ নিয়েও অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন। করোনা আবহে এটা করা কী উচিত?‌

বুধবার একদিকে ইদ উৎসব অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের শহিদ দিবস উদযাপন। সুতরাং খালি পেটে কি আর রাজনীতি হয়। তাই বিকল্প ব্যবস্থা হিসাবে সবার পাতেই উপস্থিত হবে ইদের শিমা–লাকচা। করোনা আবহে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভার্চুয়ালি বক্তব্য রাখবেন সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে। দলীয় নির্দেশে তাই একরকম সারা রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী–সমর্থকরা ভার্চুয়ালি বক্তব্য শোনানোর জন্য নানা ব্যবস্থা করছেন।

এই প্রেক্ষিতে দক্ষিণ ২৪ পরগণার ভাঙড়ের তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সাবির শেখের উদ্যোগে কুলবেড়িয়াতে তৈরি করা হয়েছে বিরাট প্যান্ডেল। সেখানে লাগানো হয়েছে জায়েন্ট স্কিন। চলছে শেষ মূহূর্তের প্রস্তুতি। উদ্যোক্তা সাবির শেখ বলেন, ‘ইদ এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভার্চুয়াল সভা একসঙ্গে পড়েছে। এলাকার সাধারণ মানুষের কাছে দিদির বক্তব্য পৌঁছে দেওয়ার জন্য এই ব্যবস্থা করা হয়েছে। যারা এখানে এসে দিদির বক্তব্য শুনবেন তাঁদের প্রত্যেকের জন্য দুপুরের খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। দুপুরের খাওয়ার সঙ্গে থাকছে শিমা– লাকচাও।’‌ এই উদ্যোগে খুশি এলাকার তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী–সমর্থকরাও।

বন্ধ করুন