বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > এবার সমুদ্রে নামতেও নিষেধ পর্যটকদের, দিঘায় মনখারাপ পর্যটকদের
দিঘায় জলোচ্ছ্বাস। ( ফাইল ছবি সৌজন্য এএনআই)
দিঘায় জলোচ্ছ্বাস। ( ফাইল ছবি সৌজন্য এএনআই)

এবার সমুদ্রে নামতেও নিষেধ পর্যটকদের, দিঘায় মনখারাপ পর্যটকদের

  • অনেকেই অনেক আশা নিয়ে সমুদ্র স্নানের জন্য এসেছিলেন। তাঁদের যথেষ্ট মন খারাপ। দিঘায় এসেও সমুদ্র না নেমেই ফিরে যেতে হচ্ছে তাঁদের।

পুজোয় দিঘায় গিয়ে বার বার হোঁচট খাচ্ছেন পর্যটকরা। একে তো সৈকত শহরে ইন্টারনেটের একেবারে দফারফা অবস্থা। এর জেরে ছবি, ভিডিও সোশ্য়াল মিডিয়ায় পোস্ট করতে পারছেন না পর্যটকরা। এর সঙ্গেই এবার সমুদ্র স্নানে গিয়েও বাধার মুখে পড়ছেন পর্যটকরা। খারাপ আবহাওয়ার জেরে দিঘা জুড়ে জারি হয়েছে কমলা সতর্কতা। এর জেরে সমুদ্রে নামতে পারছেন না পর্যটকরা। দূর থেকেই দেখতে হচ্ছে সমুদ্রের তাণ্ডব। 

অনেকেই অনেক আশা নিয়ে সমুদ্র স্নানের জন্য এসেছিলেন। তাঁদের যথেষ্ট মন খারাপ। দিঘায় এসেও সমুদ্র না নেমেই ফিরে যেতে হচ্ছে তাঁদের। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে নিম্নচাপের জেরে  দিঘা উপকূলে বৃষ্টির সঙ্গেই ঝোড়ো হাওয়া বইছে। এর জেরে আরও উত্তাল হয়ে উঠেছে সমুদ্র। বিপদ এড়াতে পর্যটকদের সমুদ্রে নামতে বাধা দিচ্ছে পুলিশ। পুলিশ, নুলিয়া, সিভিক ভলান্টিয়াররা সমুদ্র তীরে দাঁড়িয়ে রয়েছেন। কেউ যাতে সমুদ্রে নামতে না পারেন সেব্যাপারে পুলিশের তরফে আবেদন করা হয়েছে। 

আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, গত শনিবার থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টির সঙ্গেই ঝোড়ো হাওয়াও বইছে। সেকারণেই আগামী ১৯শে অক্টোবর পর্যন্ত প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিশেষ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তা আগামী বুধবার পর্যন্ত মেনে চলার ব্যাপারে খোদ মৎস্যমন্ত্রী অখিল গিরি অনুরোধ করেছেন।

 

বন্ধ করুন