বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘পরপুরুষ’-এর সঙ্গে কথা বলার শাস্তি, বীরভূমে গণধর্ষণের শিকার বিধবা আদিবাসী মহিলা
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

‘পরপুরুষ’-এর সঙ্গে কথা বলার শাস্তি, বীরভূমে গণধর্ষণের শিকার বিধবা আদিবাসী মহিলা

  • রাত বাড়লে তাঁকে তুলে আনা হয় বাড়ির সামনে একটি জঙ্গলে। সেখানে তাঁকে দফায় দফায় ধর্ষণ করে গ্রামের ৫ যুবক। অত্যাচারের জেরে জ্ঞান হারান মহিলা।

ফের গণধর্ষণ বীরভূমে। এবার অপরিচিত পুরুষের সঙ্গে কথা বলায় আদিবাসী বিধবা মহিলাকে ধর্ষণ করল গ্রামেরই ৫ যুবক। অভিযোগ, রাতভর ধর্ষণের পর সকালে তাঁকে নিয়ে শালিসি সভা বসায় মোড়ল। অভিযোগ সেখানে মোটা টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। শনিবার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতা। এখনো পর্যন্ত ২ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঘটনা বীরভূমের মহম্মদবাজারের বোরবাঁধের। অভিযোগকারিনীর দাবি, গত মঙ্গলবার এক যুবকের সঙ্গে কথা বলছিলেন তিনি। সেই অভিযোগে তাঁকে গ্রামের ক্লাবে তুলে নিয়ে যায় কয়েকজন যুবক। সেখানে তাঁকে অশ্লীল ভাবে গালিগালাজ করা হয়। 

রাত বাড়লে তাঁকে তুলে আনা হয় বাড়ির সামনে একটি জঙ্গলে। সেখানে তাঁকে দফায় দফায় ধর্ষণ করে গ্রামের ৫ যুবক। অত্যাচারের জেরে জ্ঞান হারান মহিলা। ফের তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় ক্লাবে। সেখানে চোখে মুখে জল দিয়ে তাঁর সম্বিত ফেরানো হয়। 

সকাল হলে গ্রামে শালিসি সভা বসান মোড়ল। সেখানে যে যুবকের সঙ্গে মহিলা কথা বলছিলেন তাঁর কাছ থেকে ৫০,০০০ টাকা আদায় করা হয়। এর পর প্রায় নগ্ন অবস্থায় মহিলাকে ফেরত পাঠানো হয় বাড়িতে। 

ঘটনার তিন দিন পর শনিবার মহম্মদবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতা। এর পর তৎপর হয় পুলিশ। অভিযোগের ভিত্তিতে ২ যুবককে গ্রেফতার করেছে তারা। বাকি ৩ জনের খোঁজে জোর তল্লাশি চলছে। 

বীরভূমের পুলিশ সুপার শ্যাম সিং জানিয়েছেন, অপরাধের গুরুত্ব বুঝে কড়া পদক্ষেপ করেছে পুলিশ। অভিযুক্তদের কেউ ছাড় পাবে না। 

বলে রাখি, বছরকয়েক আগে বীরভূমের লাভপুরে এক মহিলাকে ২৫ জন মিলে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছিল। মহিলা অপরিচিত পুরুষের সঙ্গে কথা বলেছেন এই অভিযোগে তাঁকে ধর্ষণ করে গ্রামেরই একদল পুরুষ। 

 

বন্ধ করুন