বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বিধায়কের সঙ্গে বিরোধ, গুলিবিদ্ধ যুব নেতা! উস্থিতে চরমে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব
তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব উস্থিতে (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)
তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব উস্থিতে (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

বিধায়কের সঙ্গে বিরোধ, গুলিবিদ্ধ যুব নেতা! উস্থিতে চরমে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

  • গুলিবিদ্ধ সুজাউদ্দিন গাজী মগরাহাট পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের উত্তর কুসুম অঞ্চলের যুব তৃণমূল সভাপতি।

বাংলার গণ্ডি ছাড়িয়ে বিভিন্ন রাজ্যে শাখা ছড়িয়ে দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। তবে এখনও দলের অস্বস্তির নাম ‘গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব’। আর এই গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরেই এবার উস্থিতে যুব তৃণমূল নেতাকে গুলি করে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল। আক্রান্তের নাম সুজাউদ্দিন গাজী। আক্রান্ত সুজাউদ্দিন গাজী মগরাহাট পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের উত্তর কুসুম অঞ্চলের যুব তৃণমূল সভাপতি।

জানা গিয়েছে রাতে দলীয় কার্যালয় থেকে কাজ সেরে বাড়ি ফেরার সময় গুলিবিদ্ধ হন সুজাউদ্দিন। অভিযোগ, কয়েকজন দুষ্কৃতী বাইকে করে এসে তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পরপর দুটি গুলি গিয়ে লাগে সুজাউদ্দিন গাজীর পেটে ও পিঠে। গুলিবিদ্ধ হয়ে সেখানেই লুটিয়ে পড়েন যুব তৃণমূল নেতা। এদিকে গুলি চলার শব্দে আশেপাশের লোকজন বেরিয়ে এলে দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায়। এরপর স্থানীয়রাই রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে বানেশ্বরপুর হাসপাতালে নিয়ে যায়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাতেই তাঁকে কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

এদিকে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ। ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় তৃণমূল বিধায়ক গিয়াসউদ্দিন মোল্লার অনুগামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। মগরাহাট পশ্চিমের বিধায়ক যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। সূত্রের খবর, বিধানসভা নির্বাচনের পর থেকে দলের কাজকর্ম নিয়ে প্রাক্তন মন্ত্রী তথা মগরাহাট পশ্চিমের বিধানসভার বিধায়ক গিয়াসউদ্দিন মোল্লার সঙ্গে বিরোধ তৈরি হয় ব্লক যুব সভাপতি ইমরান হাসানের।  কুসুম গ্রামের পঞ্চায়েত প্রধান কুতুব উদ্দিন লস্করের সঙ্গে বিধায়ক গিয়াসউদ্দিন মোল্লার মনোমালিন্য ছিল। ইমরান ও কুতুবউদ্দিনকে সমর্থন জানিয়েছিলেন দলের নেতা সুজাউদ্দিন। এই আবহে তাই সুজাউদ্দিনের উপর গুলি চালনার ঘটনায় গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের গন্ধ পাচ্ছেন অনেকে।

 

 

 

 

বন্ধ করুন