বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শীতলকুচি কাণ্ডে বর্ষপূর্তি, জেলাজুড়ে শহিদ দিবস পালন করল তৃণমূল কংগ্রেস
শীতলকুচি কাণ্ডে বর্ষপূর্তি পালন করছে তৃণমূল। 

শীতলকুচি কাণ্ডে বর্ষপূর্তি, জেলাজুড়ে শহিদ দিবস পালন করল তৃণমূল কংগ্রেস

  • এদিন স্কুলের মাঠে মঞ্চ তৈরি করে সেখানে শহিদ দিবস পালন করা হয়। মঞ্চে বক্তৃতা রাখতে গিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীর কড়া সমালোচনা করেন তৃণমল নেতা।

একুশের বিধানসভা ভোট চলাকালীন মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছিল শীতলকুচিতে। সিআরপিএফ জওয়ানদের গুলিতে নিহত হয়েছিলেন চারজন গ্রামবাসী। গত বছরের ১০ এপ্রিল সেই ঘটনা ঘটেছিল। আজ ১০ এপ্রিল সেই শীতলকুচিকাণ্ডের বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে শহীদ দিবস পালন করল তৃণমূল কংগ্রেস। এদিন তৃণমূলের জেলা সভাপতি পার্থপ্রতিম রায় নিহতদের শ্রদ্ধা জানানোর পাশাপশি তাদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন। আজ জেলাজুড়ে তৃণমূলের পক্ষ থেকে শহীদ দিবস পালন করা হয়।

এদিন শীতলকুচির জোড়পাটকিতে নিহত চারজনের পরিবারের সঙ্গে দেখা করার পর পাঠানটুলিতে দুষ্কৃতীদের গুলিতে নিহত প্রথম ভোটার আনন্দ বর্মনের পরিবারের সঙ্গে দেখা করে সমবেদনা জানান তৃণমূল জেলা সভাপতি। গত বছর এই গুলি চালানোর ঘটনা ঘটেছিল শীতলকুচির আমতলি মাধ্যমিক শিক্ষাকেন্দ্র। সেখানেও শহিদ দিবস পালন করে তৃণমূল। যে স্কুলের মাঠে চার জনের মৃত্যু হয়েছিল সেই স্কুলের মাঠেই তৈরি হয়েছে একটি শহিদ বেদি। এদিন স্কুলের মাঠে মঞ্চ তৈরি করে সেখানে শহিদ দিবস পালন করা হয়। মঞ্চে বক্তৃতা রাখতে গিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীর কড়া সমালোচনা করেন তৃণমল নেতা।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১০ এপ্রিল বিধানসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহণ চলাকালীন কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয়েছিল ৪ জনের।মনিরুজ্জামান মিঞা, হামিউল হক, হামিদুল মিঞা ও নুর আলম মিঞাদের কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে ইতিমধ্যেই সেই ঘটনার তদন্ত করছে সিআইডি। তাছাড়া কলকাতা হাইকোর্টেও এই নিয়ে মামলা চলছে।

শীতলকুচিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে মৃতদের পরিবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ তুলেছে। কেন্দ্র কোনওরকম সাহায্য করেনি বলেই তাদের অভিযোগ। হাইকোর্টের জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চে মামলাও করেছে পরিবার।তারা দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

বন্ধ করুন