বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘বিজেপির সঙ্গে চলছেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি’ অভিযোগে বিক্ষোভ তৃণমূল কর্মীদের
রানাঘাট দক্ষিণের তৃণমূলের সাংগঠনিক জেলা সভাপতি রত্না ঘোষ কর। ফাইল ছবি।
রানাঘাট দক্ষিণের তৃণমূলের সাংগঠনিক জেলা সভাপতি রত্না ঘোষ কর। ফাইল ছবি।

‘বিজেপির সঙ্গে চলছেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি’ অভিযোগে বিক্ষোভ তৃণমূল কর্মীদের

  • এই বিক্ষোভের মধ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলই দেখতে পাচ্ছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। ‘রত্না ঘোষ করকে হঠাও, তৃণমূল কংগ্রেস বাঁচাও’ এমনই ব্যানার পোস্টার নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা বিক্ষোভ করেন। তারা রত্না ঘোষ করের অপসারণের দাবি জানিয়েছেন।

নদিয়ার রানাঘাটের তৃণমূল জেলা সভাপতি রত্না ঘোষ করের বিরুদ্ধে দলের কর্মীদের অসন্তোষ ক্রমেই বাড়ছে। ইতিমধ্যেই তৃণমূল নেত্রীর বিরুদ্ধে রানাঘাটে তৃণমূল কার্যালয়ের বাইরে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন দলের কর্মী সমর্থকরা। রত্না ঘোষ করকে তৃণমূল থেকে হঠিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তৃণমূল কর্মীদের একাংশ। কিন্তু, কেন তাকে ঘিরে এই বিক্ষোভ? দলের একাংশের অভিযোগ বিজেপির লোকেদের নিয়ে চলছেন রানাঘাট দক্ষিণ সাংগঠনিক জেলা তৃণমূল সভাপতি।

এই অভিযোগকে কেন্দ্র করে তৃণমূল নেত্রীর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন কর্মী-সমর্থকদের একাংশ। তবে এই বিক্ষোভের মধ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলই দেখতে পাচ্ছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। ‘রত্না ঘোষ করকে হঠাও, তৃণমূল কংগ্রেস বাঁচাও’ এমনই ব্যানার পোস্টার নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা বিক্ষোভ করেন। তারা রত্না ঘোষ করের অপসারণের দাবি জানিয়েছেন। যদিও জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ বর্ণালী দে বিক্ষোভ নিয়ে বলেন, ‘কাউকে শিখিয়ে দেওয়া হয়নি। সকলেই স্বতঃস্ফূর্তভাবেই এই বিক্ষোভ করেছেন। ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হারানোর চেষ্টা যারা করেছিল তারা এখন সভাপতির দায়িত্বে রয়েছে। তা দেখেই হয়তো বিক্ষোভ দেখিয়েছেন কর্মীরা।’

উল্লেখ্য, দলের বৈঠকের মধ্যেই রত্না ঘোষ করকে ঘিরে বাকবিতণ্ডা এবং বিক্ষোভ দেখা দেয়। এনিয়ে অবশ্য কটাক্ষ করতে ছাড়েনি বিজেপি। বিজেপির নদিয়া দক্ষিণের সাংগঠনিক জেলা সভাপতি তথা রানাঘাট উত্তর-পশ্চিমের বিধায়ক পার্থসারথি চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘গোটা রাজ্যে এখন একই অবস্থা চলছে। তৃণমূল নেতৃত্ব একে অপরকে পছন্দ করছেন না। কারণ তারা দুর্নীতি করছেন। আর সেই কারণে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব তৈরি হচ্ছে। এটা কোনও বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়।’ তৃণমূলের অবস্থা আগামী দিনে আরও খারাপ হবে বলে তিনি দাবি করেছেন।

বন্ধ করুন