বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Purulia: পুরুলিয়ায় বিয়ে বাড়িতে ভোজ খেতে গিয়ে খুন তৃণমূল কর্মী, আটক তিন মহিলা
লক্ষিন্দরকে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয় এই হাসপাতালে। নিজস্ব ছবি।

Purulia: পুরুলিয়ায় বিয়ে বাড়িতে ভোজ খেতে গিয়ে খুন তৃণমূল কর্মী, আটক তিন মহিলা

  • কোনও দিন ঝামেলার মধ্যে জড়াননি। তারপরেও কেন তাকে খুন করা হল তা কিছুতেই তারা বুঝে উঠতে পারছেন না। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই তৃণমূলের সঙ্গে যুক্ত। এলাকায় তৃণমূলের একনিষ্ঠ কর্মী হিসেবে পরিচিত ছিলেন লখিন্দর।

বিয়ে বাড়িতে ভোজ খেতে গিয়ে খুন হলেন এক ব্যক্তি। ঘটনাটি পুরুলিয়া জেলার অযোধ্যা পাহাড় এলাকার বাড়েলোহর গ্রামের। খুন হওয়া ওই ব্যক্তির নাম লখিন্দর মুর্মু। তার বয়স আনুমানিক ৪২বছর। তিনি অযোধ্যা পাহাড়ের ভুঁইঘোরা গ্রামে। গতকাল রাতে তার রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার হয়। কীভাবে এই ব্যক্তিকে খুন করা হল? কেনই বা খুন করা হল? তা স্পষ্ট নয় পুলিশের কাছে। তবে এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই তিন মহিলাকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই ব্যক্তি পাশের গ্রাম বাড়েলোহরে একটি বিয়ে বাড়ির ভোজ খেতে গিয়েছিলেন। সেখান থেকেই তার মৃতদেহ উদ্ধার হয়। মৃতের আত্মীয়ের দাবি, তিনি একজন ভালো মানুষ হিসেবে পরিচিত। কোনও দিন ঝামেলার মধ্যে জড়াননি। তারপরেও কেন তাকে খুন করা হল তা কিছুতেই তারা বুঝে উঠতে পারছেন না। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই তৃণমূলের সঙ্গে যুক্ত। এলাকায় তৃণমূলের একনিষ্ঠ কর্মী হিসেবে পরিচিত ছিলেন লখিন্দর। তাকে কীভাবে খুন করা হল সেই বিষয়টি এখনও স্পষ্ট নয়। তবে পরিবারের দাবি, তাকে পিটিয়ে খুন করা হয়েছে।

গতকাল রাতে খুনের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বাঘমুন্ডি থানার পুলিশ। লখিন্দরের মৃতদেহ উদ্ধার করে বাঘমুন্ডি পাথরডি ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে চিকিৎসকরা তাকে ঘোষণা করেন। আজ ওই ব্যক্তির মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে পুরুলিয়া গভার্নমেন্ট মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল। কী কারণে তাকে খুন করা হয়েছিল তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। এই ঘটনায় প্রেমের তত্ত্ব উঠে আসছে। ইতিমধ্যেই ৩ মহিলাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ।

বন্ধ করুন