বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > প্রথম মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে টিউবওয়েল চুরি!‌ বন্দরশহর জুড়ে আলোড়ন পড়েছে
রাজ্যের প্রথম মুখ্যমন্ত্রী প্রফুল্লচন্দ্র ঘোষ। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
রাজ্যের প্রথম মুখ্যমন্ত্রী প্রফুল্লচন্দ্র ঘোষ। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

প্রথম মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে টিউবওয়েল চুরি!‌ বন্দরশহর জুড়ে আলোড়ন পড়েছে

  • তবে কে বা কারা চুরি করে নিয়ে গিয়েছে টিউবওয়েল পাম্পটি তা এখনও হদিশ করা যায়নি।

মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে চুরি!‌ শুনতে অবাক লাগলেও এটাই ঘটেছে বাস্তবে। তবে ঘটনাটি ঘটেছে রাজ্যের প্রথম মুখ্যমন্ত্রী প্রফুল্ল ঘোষের বাড়িতে। প্রয়াত প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে পানীয় জল সরবাহকারী টিউবওয়েল চুরি করে নিয়ে গিয়েছে চোরের দল। ২১ জুলাই রাতে এই ঘটনা ঘটেছে। তবে কে বা কারা চুরি করে নিয়ে গিয়েছে টিউবওয়েল পাম্পটি তা এখনও হদিশ করা যায়নি। ২০০ বছরের প্রাচীন এই টিউবওয়েল পাম্প চুরির ঘটনায় জোর চর্চা শুরু হয়েছে বন্দরশহর হলদিয়ায়।

ঠিক কী ঘটেছে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, হলদিয়া শিল্পাঞ্চলের চকদ্বীপা গ্রাম পঞ্চায়েতের ডালিমচক গ্রামে ২০০ বছরের প্রাচীন টিউবয়েল চুরি হয়েছে বলে খবর। তৎকালীন ব্রিটিশ আমলে বসানো হয়েছিল এই টিউবওয়েল পাম্পটি। সেটি কলাতলা মোড়ে বসানো হয়েছিল। বহু আগে ১৫ থেকে ২০টি গ্রামের মানুষ এই টিউবয়েল থেকে জল নিতে আসতেন। তখন মাটির কলসিতে জল ভরার চল ছিল। সেই ঐতিহ্যের টিউবওয়েল চুরি হয়ে গিয়েছে।

উল্লেখ্য, বাংলার প্রথম মুখ্যমন্ত্রী প্রফুল্লচন্দ্র ঘোষ ১৯৫৩ সালে অবিভক্ত মেদিনীপুরের সুতাহাটা বিধানসভার অন্তর্গত বাড় বাসুদেবপুর গ্রামে প্রায় ৮৭ বিঘা জমি কেনেন। সেখানে তিনি কৃষি, মৎস্য চাষ, বিজ্ঞানাগার, লোকশিক্ষা কেন্দ্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেন। তখন এখানে বেশ কিছুদিন বসবাস করেন তিনি। এই বাড়িতে জল সরবরাহ হতো এই টিউবওয়েল পাম্প থেকে। যদিও তখন তিনি মুখ্যমন্ত্রী পদে ছিলেন না। অবিভক্ত সুতাহাটা বিধানসভায় মোট পাঁচটি টিউবওয়েল বসিয়েছিল ইংরেজ সরকার। এখান থেকে রাজ্যের প্রথম মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে জল সরবরাহ করা হতো। এই ঐতিহ্যবাহী টিউবওয়েল পাম্পটি চুরি হয়ে যাওয়ায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে।

বন্ধ করুন