বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মাছ ধরা নিয়ে বচসা, মুর্শিদাবাদে বিলে ভেসে উঠল ২ ভাইয়ের মুণ্ডহীন দেহ
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

মাছ ধরা নিয়ে বচসা, মুর্শিদাবাদে বিলে ভেসে উঠল ২ ভাইয়ের মুণ্ডহীন দেহ

  • ঘটনায় গ্রামেরই ৮ যুবককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।

বিল থেকে উদ্ধার ২ মাসতুতো ভাইয়ের গলা–কাটা দেহ। রবিবার মুর্শিদাবাদের বহরমপুর থানা কাঁঠালিয়া গ্রামের ঘটনা। মৃত ২ কিশোরের নাম আনজারুল শেখ (‌১৬)‌ ও মানজারুল শেখ (‌১৪)‌। ঘটনায় গ্রামেরই ৮ যুবককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ। ঘটনাকে ঘিরে এখনও উত্তপ্ত বহরমপুরের ওই গ্রাম।

জানা গিয়েছে, শুক্রবার বিকেলে ভাই অষ্টম শ্রেণির ছাত্র মানজারুলকে নিয়ে বাড়ির কাছেই এক বিলে মাছ ধরতে যায় দশম শ্রেণির পড়ুয়া আনজারুল। সারাদিন কেটে গেলেও বাড়ি না ফেরায় রাতেই বহরমপুর থানায় নিখোঁজ অভিযোগ দায়ের করে ওদের পরিবার। দু’‌দিন গোটা এলাকায় খোঁজ করেও ওদের হদিশ পায়নি পুলিশ বা পরিবারের কেউই। রবিবার সকালে স্থানীয় ওই বিলে ভেসে ওঠে একজনের গলা–কাটা দেহ। তার কিছুক্ষণ পর পাশেই আর একজনের দেহ ভেসে ওঠে। হাত বাঁধা দুটি দেহেই ছিল একাধিক ক্ষতচিহ্ন। পুলিশ এসে দেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়।

স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছ থেকে পুলিশ জানতে পারে, কিছুদিন আগেই মাছ ধরা নিয়ে এলাকার কিছু যুবকের সঙ্গে ঝামেলা হয় ওই দুই ভাইয়ের। এর পরই ওই যুবকদের খুঁজে বের করে থানায় নিয়ে যেতে চেষ্টা করলে পুলিশকে বাধা দেয় গ্রামবাসীরা। ক্ষুব্ধ গ্রামবাসীদের দাবি, তাদের হাতে ওই যুবকদের ছেড়ে দিতে হবে। এর বিচার তারাই করবে। মুহূর্তে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে সেখানে। পুলিশ ও গ্রামবাসীদের মধ্যেও সঙ্ঘর্ষ হয়। এমনকী প্রিজন ভ্যানে উঠে গিয়ে ওই যুবকদের মারধর শুরু করতে শুরু করে গ্রামবাসীরা। এর পরই বহরমপুর থানা থেকে বিশাল পুলিশ বাহিনী এসে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনে।

আপাতত আটক ওই যুবকদের থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। ঘটনার পেছনে মাছ ধরা ঝামেলা নাকি অন্য কোনও কারণ রয়েছেত তা তদন্ত করে দেখছে বহরমপুর থানা।

বন্ধ করুন