বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শীতের কাঁপুনি থেকে রক্ষা পেতে আগুন পোহাচ্ছিলেন, অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু ২ বৃদ্ধার
শীতের কাঁপুনি থেকে রক্ষা পেতে আগুন পোহাচ্ছিলেন, অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু ২ বৃদ্ধার। প্রতীকী ছবি।
শীতের কাঁপুনি থেকে রক্ষা পেতে আগুন পোহাচ্ছিলেন, অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু ২ বৃদ্ধার। প্রতীকী ছবি।

শীতের কাঁপুনি থেকে রক্ষা পেতে আগুন পোহাচ্ছিলেন, অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু ২ বৃদ্ধার

  • ঘটনাটি উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদের পাহাড়পুরের এবং ইটাহারে ঘটেছে।

কয়েকদিন ধরেই রাজ্যে ব্যাপক ঠান্ডা পড়ছে। শীতের দাপুটে ইনিংসে জবুথবু রাজ্যবাসী। উত্তরবঙ্গের দিকে ঠান্ডা আরও বেশি। আর এই হাড় কাঁপানো শীতের হাত থেকে রক্ষা পেতে আগুন পোহাতে গিয়ে মর্মান্তিক ঘটনা ঘটল উত্তর দিনাজপুর জেলায়। দুটি পৃথক ঘটনায় আগুনে পুড়ে মৃত্যু হল ২ বৃদ্ধার। ঘটনাটি উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদের পাহাড়পুরের এবং ইটাহারে ঘটেছে। অগ্নিদগ্ধ বৃদ্ধাদের নাম ফাতেমা বেগম ও আয়েশা বেওয়া।

 

জানা যাচ্ছে, পাহাড়পুরে ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে। শীতের কাঁপুনি সইতে না পেরে আগুনের আশ্রয় নিয়েছিলেন ফাতেমা বেগম। আগুনে হাত পা সেঁকে শরীরকে উষ্ণতা দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন তিনি। সেই সময় অজান্তেই আগুন ধরে যায় ফতেমা বেগমের শাড়িতে। প্রথমে আগুন লাগার বিষয়টি বুঝতে না পারলেও কিছুক্ষণের মধ্যেই শাড়িতে আগুন লাগার বিষয়টি তিনি টের পান। ততক্ষণে আগুন অনেকটাই ছড়িয়ে পড়ে। তড়িঘড়ি তিনি শাড়ি খুলে ফেলার চেষ্টা করেন। অন্যদিকে, তার স্বামী বৃদ্ধ হওয়ায় তৎপরতার সঙ্গে আগুন নেভাতে পারেননি। আগুন থেকে বাঁচতে শাড়ি খোলার আগেই তা সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। শরীরের অধিকাংশই আগুনে পুড়ে যায়। অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

 

 

অন্যদিকে, এই ঘটনার ঠিক আগেই মঙ্গলবার রাতে ইটাহারে বাড়িতে আগুন পোহাচ্ছিলেন আয়েশা বেওয়া। একইভাবে সেই সময় তার শাড়িতে আগুন লেগে যায়। নেভানোর আগেই তা আয়েশা বেওয়ার সারা শরীরকে গ্রাস করে নেয় আগুন। ঘটনায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। দুজনকেই রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছিল। ক্ষেত্রে মৃতদেহ ময়নাতদন্তের পর তাদের পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

বন্ধ করুন