বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ভরা বাজারে প্রিজন ভ্যান থেকে লাফ দুই দুষ্কৃতীর, পেছনে পুলিশের তাড়া, তারপর…
প্রিজন ভ্যানের জানালা গলে চম্পট ২ দুষ্কৃতীর (প্রতীকী ছবি)

ভরা বাজারে প্রিজন ভ্যান থেকে লাফ দুই দুষ্কৃতীর, পেছনে পুলিশের তাড়া, তারপর…

  • তমলুক পুলিশের ভূমিকায় বড় প্রশ্ন।

মঙ্গলবার দুপুর। তখনও বাজারে ভর্তি লোকজন। অন্যান্যদিনের মতোই প্রিজন ভ্যানে চাপিয়ে সেন্ট্রাল জেল থেকে তমলুক আদালতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল অভিযুক্তদের। আচমকাই হই হই কাণ্ড। চারদিকে চিৎকার, ওরে ধর ধর, পালিয়ে গেল, পালিয়ে গেল। কিছু বুঝে ওঠার আগেই প্রিজন ভ্যানের জানালার রড বেঁকিয়ে তা গলে বেরিয়ে পড়ে দুই অভিযুক্ত। মাদক মামলায় ধরা পড়েছিল তারা। এরপর রাস্তায় নেমে দে দৌড়। একেবারে গলি পথ ধরে দুজনে পগার পার। তাদের খোঁজে ব্যপক তল্লাশি শুরু হয়েছে। ঠিক কী হয়েছিল এদিনের ঘটনা?

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর,কয়েক মাস আগেই মাদক মামলায় দুজন ধরা পড়েছিল। এরপর এদিন প্রিজন ভ্যানে চাপিয়ে তাদেরকে আদালতের পথে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। এদিকে যানজটে কিছুটা সময়ের জন্য আটকে গিয়েছিল প্রিজন ভ্যানটি। সেই সুযোগটাই কাজে লাগায় দুষ্কৃতীরা। প্রথমে একজন ভ্যানের জানালার রড বেঁকিয়ে রাস্তায় ঝাঁপ দেয়। পুলিশ কর্মীরা তার পেছনে ছুটতে শুরু করেন। সেই সুযোগে অপরজনও প্রিজন ভ্যান থেকে বেরিয়ে গা ঢাকা দেয়। 

বাসিন্দাদের মতে, জেলখানা মোড় থেকে মালি জঙ্গলপাড়া হয় ধোপাপাড়া, মীরবসতি হয়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। ভরা বাজারে কয়েকজন চা খাচ্ছিলেন। তাঁরা বলেন, কিছু বুঝে ওঠার আগেই একজন পেছন দিয়ে হুশ করে চলে গেল। ধরার আগেই বেরিয়ে গেল। তবে গোটা ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। এদিকে জেলা পুলিশ জানিয়েছে, পলাতকদের খোঁজে ব্যপক তল্লাশি চলছে।

 

বন্ধ করুন