ভেঙে পড়েছে সেতুর একাংশ (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
ভেঙে পড়েছে সেতুর একাংশ (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

ফরাক্কায় ভাঙল নির্মীয়মান সেতু, মৃত্যু ২ জনের, মৃতের সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা

আচমকা ভেঙে পড়ল ফরাক্কায় নির্মীয়মাণ নতুন সেতুর একাংশ। দুর্ঘটনার জেরে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

নির্মাণকাজ শুরুর পর কাটেনি ১৪ মাস। তারমধ্যেই ভেঙে পড়ল ফরাক্কায় নির্মীয়মান নতুন সেতুর একাংশ। এখনও পর্যন্ত দু'জনের মৃত্যু হয়েছে।

আরও পড়ুন : ব্রিজ বিপর্যয়ের দায় কেন্দ্রের, অভিযোগ অধীরের

জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধানে গত বছর ১ জানুয়ারি থেকে পুরনো ফরাক্কা সেতুর সমান্তরালে নয়া সেতুট নির্মাণ কাজ শুরু হয়। দক্ষিণ ভারতের একটি সংস্থার পাশাপাশি একটি চিনা সংস্থাও সেই কাজে যুক্ত। রবিবার সেতুর মালদা ও মুর্শিদাবাদ - দু'দিকেই কাজ চলছিল। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা নাগাদ মালদার বৈষ্ণবনগর থানা এলাকার দিকে সেতুর এক ও দু’নম্বর পিলারের মধ্যে গার্ডার বসানোর কাজ হচ্ছিল। সেই সময় ভেঙে পড়ে গার্ডারটি। সেখানে তখন কাজ করছিলেন কমপক্ষে ১০ জন শ্রমিক। ধ্বংসস্তূপের নীচে চাপা পড়ে যান কয়েকজন শ্রমিক।

ভেঙে পড়া সেতুর ধ্বংসস্তূপের মাঝে তল্লাশি চলেচে আটকে পড়া শ্রমিকদের। রবিবার রাতে, ফরাক্কায়।
ভেঙে পড়া সেতুর ধ্বংসস্তূপের মাঝে তল্লাশি চলেচে আটকে পড়া শ্রমিকদের। রবিবার রাতে, ফরাক্কায়।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ ও বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী। শুরু হয় উদ্ধারকাজ। প্রাথমিকভাবে সাতজন শ্রমিককে উদ্ধার করা হয়। তাঁদের মধ্যে একজনের ঘটনাস্থলেই মৃ্ত্যু হয়। মালদা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যান একজন। তিনি জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ার বলে খবর। আহতদের মালদা মেডিক্যাল কলেজ ভরতি করা হয়েছে।

চলছে উদ্ধারকাজ (ছবি সৌজন্য এএনআই)
চলছে উদ্ধারকাজ (ছবি সৌজন্য এএনআই)

উদ্ধারকারীদের আশঙ্কা, ধ্বংসস্তূপের নীচে এখনও অনেকে আটকে রয়েছেন। দ্রুত তাঁদের উদ্ধারের চেষ্টা করা হলেও রাতের অন্ধকারে ব্যাহত হচ্ছে উদ্ধারকাজ। ফলে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে আশঙ্কা উদ্ধারকারীদের।

মালদার পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া বলেন, 'খবর পেয়ে দুর্ঘটনাস্থলে গিয়েছে পুলিশ। দুর্ঘটনা নিয়ে পুরো তথ্য না এলেও দ্রুতগতিতে উদ্ধারকাজ চালানো হচ্ছে।' মালদার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীপক সরকার জানিয়েছে, নতুন সেতু তৈরির সময় এই বিপত্তি ঘটে। এখনও পর্যন্ত দু'জন মারা গিয়েছেন।


বন্ধ করুন