বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ফেসবুকে ব্যস্ত স্ত্রী, কাজ করত না ঘরজামাই, সন্দেহের বিষে মালদায় দম্পতির মৃত্যু
অস্বাভাবিক মৃত্যু মালদার দম্পতির (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
অস্বাভাবিক মৃত্যু মালদার দম্পতির (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

ফেসবুকে ব্যস্ত স্ত্রী, কাজ করত না ঘরজামাই, সন্দেহের বিষে মালদায় দম্পতির মৃত্যু

  • বাড়ির কাছেই ফাঁকা মাঠে ওই দম্পতি বিষ খায় বলে স্থানীয় বাসিন্দারা সন্দেহ করছেন।

বাড়ির কাজকর্ম কার্যত লাটে উঠেছিল। দিন রাত ফেসবুক আর ফোন করাতেই ব্যস্ত থাকতেন স্ত্রী। এনিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে বিবাদ লেগেই থাকত। কিন্তু তার পরিণতি যে এমন মর্মান্তিক হবে তা ভাবতে পারেননি কেউ। বিয়ের সাত মাসের মাথায় অস্বাভাবিক মৃত্যু স্বামী ও স্ত্রীর। মালদা থানার মহিষবাথানি গ্রাম পঞ্চায়েতের বলরামপুর এলাকার খুনিবাথান গ্রামের ঘটনা।

 রবিবার রাতে বাড়ির কাছেই ফাঁকা মাঠে ওই দম্পতি বিষ খায় বলে স্থানীয় বাসিন্দারা সন্দেহ করছেন। এরপর মালদা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল দুজনকেই। রবিবার রাতেই মারা যান বধূ। সোমবার মৃত্য়ু হয় স্বামীর। পুলিশ জানিয়েছে মৃতের নাম শক্তি মণ্ডল(২২) ও চাঁদনি মণ্ডল(১৯)। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, স্ত্রী বেশিরভাগ সময়ই ফেস বুকে ব্যস্ত থাকতেন। ফোন করা নিয়েও স্ত্রীকে সন্দেহ করতেন স্বামী। তার জেরে অশান্তি লেগেই থাকত। তার পরিণতিতেই তারা বিষ খেয়েছিলেন কি না তা দেখা হচ্ছে।

স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে খবর, প্রেম করেই বিয়ে করেছিলেন তারা। এদিকে শক্তি সেভাবে কিছু করতেন না। শ্বশুরবাড়িতেই ঘরজামাই থাকতেন। এদিকে এসব নিয়েও চাপা অশান্তি ছিল। চাঁদনির বাবা রমেশ মণ্ডল জানিয়েছেন, মোবাইল নিয়ে মেয়ে ও জামাইয়ের মধ্যে ঝগড়া লেগেই থাকত। অশান্তিও হত। কিন্তু সেটা থেকে যে দুজনে এভাবে বিষ খাবে সেটা ভাবাই যাচ্ছে না। 

 

বন্ধ করুন