বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শ্বশুরবাড়িতে ঝুলছেন পুলিশকর্মী, বুক চাপড়াচ্ছেন পরিজনরা! কী আর এমন বয়স!
শ্বশুরবাড়ি থেকে এক পুলিশকর্মীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার। (প্রতীকী ছবি)

শ্বশুরবাড়িতে ঝুলছেন পুলিশকর্মী, বুক চাপড়াচ্ছেন পরিজনরা! কী আর এমন বয়স!

  • পরিজনদের দাবি, রাতে মেয়েকে ঘরের বাইরে বের করে দরজা বন্ধ করে দিয়েছিলেন। এরপর আর কোনও সাড়াশব্দ মেলেনি। 

স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে রোজকার অশান্তি। কয়েক বছর ধরে শ্বশুরবাড়িতেই থাকতেন ওই পুলিশকর্মী। কী আর এমন বয়স। মাত্র ৩২ বছর। আর শ্বশুরবাড়ি থেকে উদ্ধার হল ওই পুলিশকর্মীর ঝুলন্ত দেহ। মৃতের নাম মনোজ দাস। পশ্চিম মেদিনীপুরের দেউলি এলাকার ঘটনা। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের ধারনা দাম্পত্য কলহ একেবারে চরমে গিয়েছিল। তার জেরেই তিনি গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পুলিশ তাঁর দেহ ময়নাতদন্তের জন্য় পাঠিয়েছে।

এদিকে পুলিশকর্মীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর জেরে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। কিন্তু কি এমন অশান্তি হল যে তিনি এভাবে চরম পথ বেছে নিলেন? এই প্রশ্নটা ভাবাচ্ছে স্থানীয় বাসিন্দাদের। স্থানীয় সূত্রে খবর, ওই পুলিশকর্মীর সঙ্গে তাঁর স্ত্রীর মাঝেমধ্যেই কথাকাটাকাটি হত। এটা পাড়ার লোকজনও জানতেন। তবে দাম্পত্য কলহ বলে গোটা বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করতেন স্থানীয়রা।

স্থানীয় সূত্রে খবর, কী কারনে কথাকাটাকাটি হয়েছিল সেটা ঠিক জানা যায়নি। তবে রাতে মেয়েকে ঘর থেকে বের করে তিনি খিল তুলে দেন। এরপর আর কোনও সাড়াশব্দ পাওয়া যায়নি। অনেকক্ষণ কেটে যায় তাঁর। কিন্তু কিছুতেই তিনি দরজা খুলতে চাননি। পরে বহুক্ষণ হয়ে যাওয়ার পরেও তিনি দরজা খোলেননি। 

পরে ঘরের দরজা ভেঙে উদ্ধার হয় দেহটি। গোটা ঘটনায় এলাকায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

বন্ধ করুন