বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Upen Biswas: টাকা নিয়ে শিক্ষকের চাকরি করিয়ে দিতেন রঞ্জন, তদন্তে সাহায্য করতে চান উপেন
উপেন বিশ্বাস। ফাইল ছবি।

Upen Biswas: টাকা নিয়ে শিক্ষকের চাকরি করিয়ে দিতেন রঞ্জন, তদন্তে সাহায্য করতে চান উপেন

  • এনিয়ে তৃণমূল নেতা অঘোরচন্দ্র হালদার দাবি করেছেন, তিনি রঞ্জনকে চেনেন। এমনকি অনেককে চাকরি দিয়েছেন সে কথাও শুনেছেন। যদিও এই বিষয়ে পুলিশ কিছু বলতে চাইনি। এমনকি সিপিএম নেতা সুশান্ত চক্রবর্তীও কিছু বলতে চাননি।

রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা সিবিআইয়ের প্রাক্তন কর্তা উপেন বিশ্বাস সোশ্যাল মিডিয়ায় লক্ষ টাকা নিয়ে শিক্ষকের চাকরি দেওয়া হয়েছিল দাবি করেছিলেন। উত্তর ২৪ পরগনার এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে তিনি এই অভিযোগ এনেছিলেন। সেই ব্যক্তির আসল পরিচয় না জানালেও তাকে রঞ্জন বলে জানিয়েছিলেন উপেন বিশ্বাস। এখন কে এই রঞ্জন? তাই নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে। এ নিয়ে উপেন বিশ্বাস সিবিআইয়ের কাছে যাবেন না বলেই জানিয়েছেন। তবে সিবিআই কর্তারা যদি তার কাছে আসে তাহলে কীভাবে তদন্ত এগোতে হবে সে বিষয়ে পরামর্শ দেবেন বলে জানিয়েছেন উপেন বিশ্বাস।

রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী উপেন বিশ্বাস ‘রঞ্জন’কে ‘সৎ রঞ্জন’ বলেই দাবি করেছেন। জানা গিয়েছে, রঞ্জন টাকা নিয়ে যেমন চাকরি দিতেন তেমনি কারও চাকরি না হলে তাকে সুদ সহ টাকা ফিরিয়ে দিতেন। ভিডিয়োতে উপেন বিশ্বাস দাবি করেছিলেন, রঞ্জন উত্তর ২৪ পরগনার বাগদার বাসিন্দা। সেখানে গিয়ে দেখা যায় রঞ্জনের আসল পরিচয় অনেকেই জানেন। অনেকে আবার তার বাড়িও চেনেন। তবে কয়েকদিন ধরে তার বাড়িটি তালা বন্ধ রয়েছে। দিন কয়েক আগে তাকে স্কুটি নিয়ে ঘোরাফেরা করতে দেখা গিয়েছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। রঞ্জন আসলে পেশায় একটি স্কুলের পার্শ্বশিক্ষক। তার ব্যবহার খুবই সাদামাটা। তার বাড়িতে রাজ্যের অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তিদের যাতায়াত রয়েছে বলেই দাবি স্থানীয়দের। এনিয়ে তৃণমূল নেতা অঘোরচন্দ্র হালদার দাবি করেছেন, তিনি রঞ্জনকে চেনেন। এমনকি অনেককে চাকরি দিয়েছেন সে কথাও শুনেছেন। যদিও এই বিষয়ে পুলিশ কিছু বলতে চাইনি। এমনকি সিপিএম নেতা সুশান্ত চক্রবর্তীও কিছু বলতে চাননি।

বাগদার প্রাক্তন বিধায়ক দুলাল বর জানিয়েছেন, তিনি রঞ্জনকে চেনেন না তবে একজনকে চেনেন যে অনেকের চাকরি করিয়ে দিয়েছে। ঘটনার তদন্ত প্রসঙ্গে উপেন জানিয়েছেন, পুলিশ বা সিবিআই বা তৃণমূল নেতৃত্ব কেউ যদি তার কাছে জানতে চান তাহলে তিনি তথ্য দিয়ে সাহায্য করবেন।

বন্ধ করুন