বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Vande Bharat Express: ‘‌লেট’‌ করল বন্দে ভারত এক্সপ্রেস, ছাড়ল দেড় ঘণ্টা বাদে, যাত্রী বিক্ষোভে উত্তাল

Vande Bharat Express: ‘‌লেট’‌ করল বন্দে ভারত এক্সপ্রেস, ছাড়ল দেড় ঘণ্টা বাদে, যাত্রী বিক্ষোভে উত্তাল

দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে ছিল বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। (ছবি, সৌজন্যে পিটিআই)

গতকাল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গঙ্গাসাগর থেকে বলেছিলেন, বিহার থেকে পাথর মারা হলে বাংলার ঘাড়ে দোষ চাপানো হচ্ছে কেন?‌ বাংলাকে বদনাম করার জন্য এসব করা হচ্ছে। পুরনো ট্রেন রং করে নতুন বলে চালানো হচ্ছে। তারপরই আজ, শুক্রবার ‘‌লেট’‌ করল বন্দে ভারত এক্সপ্রেস।

বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের। এই নীল–সাদা সেমি হাইস্পিড ট্রেনটি প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প। যেখানে শুরু থেকেই উঠেছে খাবারের মান নিয়ে প্রশ্ন। যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্য নিয়ে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। দু’‌বার হামলা হয়েছে এই ট্রেনের উপর। বাকি ছিল ‘‌লেট’‌ করা। এবার সেটাও সংযোজিত হল প্রধানমন্ত্রীর স্বাদের ট্রেনে। এবার নির্ধারিত সময় পেরিয়ে গেলেও হাওড়াগামী বন্দে ভারত এক্সপ্রেস শিলিগুড়ির উদ্দেশ্যে ছাড়ল না। এই দেরির জেরে ক্ষোভ তুমুল আকার নেয় যাত্রীদের মধ্যে। আজ, শুক্রবার বিকেলে আমবাড়ি–ফালাকাটা স্টেশনে দাঁড়িয়ে ছিল ট্রেনটি।

ঠিক কী ঘটেছে বন্দে ভারত এক্সপ্রেসে?‌ আজ, শুক্রবার হাওড়া থেকে শিলিগুড়ি এনজিপি স্টেশনে ঢোকার আগে রাঙাপানি লেভেল ক্রসিংয়ে বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ঢোকে ১টা ৩৫ মিনিট নাগাদ। ট্রেনটি ছাড়ার কথা ছিল দুপুর ২টো ৫৫ মিনিটে। কিন্তু নির্ধারিত সময় পার হযে গেলেও দাঁড়িয়ে থাকে দ্রুতগামী ট্রেনটি। ট্রেন কখন ছাড়বে তার সদুত্তর না পেয়ে ক্ষোভ উগড়ে দেন যাত্রীরা। তাতে তাল কাটে বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রা।

ঠিক কী বক্তব্য রেলের?‌ শিলিগুড়িতে ঢোকার আগে দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে ছিল বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। পরিস্থিতিতে অস্বস্তি তৈরি হয় রেলের বলে সূত্রের খবর। এই বিষয়টি নিয়ে উত্তর–পূর্ব রেলের জনসংযোগ আধিকারিক সব্যসাচী দে বলেন, ‘‌আমার কাছে দেরির কারণের কোনও খবর নেই। কী কারণে বন্দে ভারত এক্সপ্রেস দাঁড়িয়ে গিয়েছিল তার সঠিক কারণ জানি না। তবে যেটুকু জানি তা হল, ইন্টারলকিংয়ের কাজ চলছে এনজেপি রুটে। তাই হয়তো ট্রেন ছাড়তে দেরি হয়েছে।’‌ কিন্তু এসব কথা শুনতে রাজি নন যাত্রীরা। তাঁরা চিৎকার–চেঁচামিচি জুড়ে দেন।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ গতকাল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গঙ্গাসাগর থেকে বলেছিলেন, বিহার থেকে পাথর মারা হলে বাংলার ঘাড়ে দোষ চাপানো হচ্ছে কেন?‌ বাংলাকে বদনাম করার জন্য এসব করা হচ্ছে। পুরনো ট্রেন রং করে নতুন বলে চালানো হচ্ছে। তারপরই আজ, শুক্রবার ‘‌লেট’‌ করল বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। তবে উত্তর–পূর্ব রেল আগেই ঘোষণা করেছিল, আমবাড়ি–ফালাকাটা, রাঙাপানি, এনজেপি–সহ কয়েকটি রেললাইনে ইন্টারলকিংয়ের কাজ হবে। তার জেরে বেশ কয়েকটি ট্রেন বাতিল হয়েছে। এনজেপি স্টেশনে শুধুমাত্র রাজধানী, বন্দে ভারতের মতো কয়েকটি ট্রেনের যাতায়াত চলছে। এই কাজের জন্য বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ছাড়তে দেরি হয়েছে বলে রেল সূত্রে খবর।

বন্ধ করুন