বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ত্রাণের টাকা কেন মেলেনি? প্রশ্ন করায় গ্রামবাসীদের কোপাল তৃণমূলি মেম্বারের স্বামী
ছবি - Google
ছবি - Google

ত্রাণের টাকা কেন মেলেনি? প্রশ্ন করায় গ্রামবাসীদের কোপাল তৃণমূলি মেম্বারের স্বামী

  • ঘটনা সোমবার সন্ধ্যার। হিঙ্গলগঞ্জ ব্লকের দুলদুলি গ্রাম পঞ্চায়েতের কোঠাবাড়ি গ্রামে আমফানের ত্রাণে দুর্নীতির অভিযোগ জানাতে তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য মমতা সরদার মুন্ডার বাড়ি গিয়েছিলেন কয়েকজন গ্রামবাসী।

মুখ্যমন্ত্রী যতই বলুন দুর্নীতি মানব না, আমফানের ত্রাণের টাকা সরাতে বেপরোয়া তৃণমূল নেতারা। যার জেরে প্রতিবাদী গ্রামবাসীদের ওপর হামলা চালাতেও পিছ পা নয় তারা। ইতিমধ্যে ত্রাণবণ্টনে দুর্নীতির প্রতিবাদ করে পশ্চিমবঙ্গের একাধিক জায়গায় শাসকদলের নেতাদের হাতে আক্রান্ত হয়েছেন গ্রামবাসীরা। ফের একবার ঘটল তেমন ঘটনা। এবার বসিরহাটের হিঙ্গলগঞ্জে তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য ও তাঁর পোষা গুন্ডাদের মারে আহত একাধিক গ্রামবাসী। 

ঘটনা সোমবার সন্ধ্যার। হিঙ্গলগঞ্জ ব্লকের দুলদুলি গ্রাম পঞ্চায়েতের কোঠাবাড়ি গ্রামে আমফানের ত্রাণে দুর্নীতির অভিযোগ জানাতে তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য মমতা সরদার মুন্ডার বাড়ি গিয়েছিলেন কয়েকজন গ্রামবাসী। অভিযোগ, তখন গ্রামবাসীদের ওপর ধারাল অস্ত্র নিয়ে হামলা চালান পঞ্চায়েত সদস্যের স্বামী তথা স্থানীয় তৃণমূল নেতা আশুতোষ মুন্ডা। বেধড়ক কোপানো হয় গ্রামবাসীদের। তাতে ২ জন গ্রামবাসী আহত হয়েছে। বিমল মণ্ডল ও রমেন গায়েন নামে ওই ২ ব্যক্তিকে বসিরহাট জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

এর পর দুপক্ষের সংঘর্ষ বেঁধে যায়। তাতে আরও ৪ জন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে হিঙ্গলগঞ্জ থানার পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, আমফানের ত্রাণের টাকা প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তরা পাননি। প্রায় পুরো টাকাটাই ঢুকেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের অ্যাকাউন্টে। এই অভিযোগ জানাতে পঞ্চায়েত সদস্যের কাছে গিয়েছিলাম। সেজন্য ধারাল অস্ত্র নিয়ে কোপানো শুরু করে তৃণমূলি দুষ্কৃতীরা।  

অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূলি পঞ্চায়েত সদস্য। তিনি বলেন, ‘শুধু তৃণমূল নেতাদের অ্যাকাউন্টে টাকা ঢুকেছে এই অভিযোগ ঠিক নয়। ক্ষতিগ্রস্তদের যে তালিকা বিডিওকে পাঠানো হয়েছে তাঁরা প্রত্যেকেই টাকা পাবেন। একটু ধৈর্য ধরতে হবে।’

 

বন্ধ করুন