আহত বাদুড়িয়া থানার ওসি।
আহত বাদুড়িয়া থানার ওসি।

ত্রাণের দাবিতে স্থানীয়দের বিক্ষোভে পুলিশের লাঠি, পালটা মারে মাথা ফাটল ওসির

  • ত্রাণ মিলছে না, ত্রাণ বণ্টনে রাজনীতি হচ্ছে, এই অভিযোগে বুধবার সকালে মসলন্দপুর – খোলাপোতা সড়ক অবরোধ করেন বসিরহাট পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত তারাগনিয়ার দাসপাড়ার বাসিন্দারা।

ত্রাণের দাবিতে গ্রামবাসীদের বিক্ষোভে পুলিশের লাঠিচার্জ। পালটা হামলায় মাথা ফাটল ওসির। ঘটনার জেরে বুধবার সকালে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় উত্তর ২৪ পরগনার বাদুড়িয়ার তারাগনিয়া এলাকা। ঘটনার পর এলাকায় মোতায়েন হয়েছে ব্যাপক পুলিশ বাহিনী।

ত্রাণ মিলছে না, ত্রাণ বণ্টনে রাজনীতি হচ্ছে, এই অভিযোগে বুধবার সকালে মসলন্দপুর – খোলাপোতা সড়ক অবরোধ করেন বসিরহাট পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত তারাগনিয়ার দাসপাড়ার বাসিন্দারা। তাঁদের দাবি, লকডাউনের জেরে দেড় মাস আয় নেয়। ওদিকে মিলছে না ত্রাণ। ফলে ২ বেলা হাঁড়ি চড়ানোর মুশকিল হচ্ছে। এই অভিযোগে বুধবার সকাল থেকে পথ অবরোধ শুরু করেন তাঁরা।


অবরোধ তুলতে সেখানে বাহিনী নিয়ে পৌঁছন বাদুড়িয়া থানার ওসি। বেশ কয়েকবার বোঝানোর পরও অবরোধ তুলতে রাজি হননি গ্রামবাসীরা। এর পর লাঠি চালায় পুলিশ। পালটা পুলিশের ওপর হামলা করেন গ্রামবাসীরা। মাটিতে ফেলে লাঠি দিয়ে বেদম পেটান ওসিকে। এর জেরে ওসির মাথা ফাটে। ঘটনায় আহত হয়েছেন ওরও ৪ পুলিশকর্মী।

ঘটনার পর বসিরহাট থেকে বিশাল বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন মহকুমা পুলিশ আধিকারিক অভিজিৎ সিনহা। এলাকায় শুরু হয় ব্যাপক ধর পাকড়। পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে গ্রাম ছাড়েন পুরুষরা। এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে বাহিনী।

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, গ্রামবাসীদের অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জেলা তৃণমূল সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের দাবি, 'স্থানীয় কংগ্রেসি কাউন্সিলর ত্রাণ বিলি করেছিলেন। তাতে কিছু পরিবার ত্রাণ পায়নি। তারা এদিন বিক্ষোভ দেখাচ্ছিল।'



বন্ধ করুন