বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ডেকেও আসেনি বনদফতর! ধূপগুড়িতে দড়ি দিয়ে অজগর পাকড়াও করলেন গ্রামবাসীরা
দড়ি দিয়ে অজগর ধরে ফেললেন বাসিন্দারা( প্রতীকী ছবি / AFP) (AFP)
দড়ি দিয়ে অজগর ধরে ফেললেন বাসিন্দারা( প্রতীকী ছবি / AFP) (AFP)

ডেকেও আসেনি বনদফতর! ধূপগুড়িতে দড়ি দিয়ে অজগর পাকড়াও করলেন গ্রামবাসীরা

  • অতবড় সাপটিকে কীভাবে ধরবেন গ্রামবাসীরা? কিছুতেই ভেবে কূলকিনারা পাচ্ছিলেন না গ্রামবাসীরা।

বিশাল আকৃতির অজগর সাপ। জলপাইগুড়ির ধূপগুড়ির ঝুমুর এলাকায় ধানক্ষেতের মধ্যে শুয়েছিল সাপটি। গ্রামবাসীরাই সাপটিকে প্রথম দেখতে পান। স্থানীয় একটি রাস্তা পার করে ধানক্ষেতের মধ্যে ঢুকে যাচ্ছিল সাপটি। এদিকে অজগর দেখতে পেয়ে গ্রামবাসীদের মধ্যে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। এক গ্রাম থেকে অপর গ্রামে অজগরের খবর ছড়িয়ে পড়ে। দলে দলে লোকজন এসে সাপ দেখার জন্য ভিড় করেন। 

 কিন্তু অতবড় সাপটিকে কীভাবে ধরবেন গ্রামবাসীরা? কিছুতেই ভেবে কূলকিনারা পাচ্ছিলেন না গ্রামবাসীরা।  বাসিন্দাদের দাবি, এরপর বনদফতরের খবর দেওয়া হয়। একবার নয়, বার বার দফতরে ফোন করা হয়। কিন্তু সন্ধ্যা পেরিয়ে রাত হতে থাকে। অথচ বনদফতরের কারোর দেখা পাওয়া যায়নি বলে অভিযোগ। এরপর বাসিন্দারা আতান্তরে পড়ে যান। এদিকে সাপটিকে না ধরলেও নয়। শেষ পর্যন্ত কোনও উপায় না দেখে বাসিন্দারাই নেমে পড়েন সাপ ধরতে। কিন্তু অজগরের মতো এত বড় সাপ ধরা কী মুখের কথা!

এদিকে সাপটিও মাঠে ঘোরাঘুরি করছে ততক্ষণে। এরপর বনদফতরের কাছ থেকে কোনও সহায়তা না পেয়ে গ্রামবাসীরাই সাপটিকে দড়ি দিয়ে বেঁধে ফেলেন। এরপর তারা সাপটিকে বস্তায় পুরে ফেলেন। ডুয়ার্স নেচার অ্যান্ড স্নেক লাভার অর্গানাইজেশনকে খবর দেওয়া হয়। তাঁদের প্রতিনিধিরা এসে সাপটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যান। কিন্তু বার বার ডেকেও কেন বনদফতরের লোকজন সাপ উদ্ধারে এগিয়ে এলেন না সেই প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। তবে এনিয়ে বনদফতরের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।       

 

বন্ধ করুন