বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > জলের পাইপ ফেটে বাঁকুড়ায় বিপত্তি চরমে, বিরোধীরা বলছেন ‘‌দুয়ারে ফোয়ারা’‌
জলের পাইপ ফেটে গিয়েছে। ছবি সৌজন্য :‌ এএনআই

জলের পাইপ ফেটে বাঁকুড়ায় বিপত্তি চরমে, বিরোধীরা বলছেন ‘‌দুয়ারে ফোয়ারা’‌

  • আজ, রবিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখা যায় গোটা এলাকা জলে থই থই করছে। ফোয়ারার মত জল বেরিয়ে আসছে মাটি থেকে। আর তা ঘটেছে ঝড়বৃষ্টির ফলে। এই ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দারা সমস্যায় পড়েছেন। ঘটনাটি পুরসভায় জানানো হয়েছে। কিন্তু রবিবার ছুটির দিন হওয়ায় সমস্যা মিটবে কিনা তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে।

রবিবার সকালে পাইপ ফেটে বিপত্তি দেখা দিল। তার জেরে তীব্র সমস্যার মুখোমুখি হলেন বাসিন্দারা। এই ঘটনায় জলের সংকট দেখা দিয়েছে। এই ঘটনার পর এলাকার একাধিক গৃহস্থের বাড়িতে জল জমে গিয়েছে। সাতসকালে জলযন্ত্রণা সহ্য করতে হচ্ছে বাঁকুড়া পুরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের শুভঙ্কর সরণী এলাকার মানুষদের।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, গতকাল রাতে ব্যাপক ঝড়বৃষ্টি হয়েছে। তখন কিছু বোঝা যায়নি। সকালে এই ঝড়বৃষ্টির প্রভাবে এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়ে। তাছাড়া বাড়ির উঠোন, দালান জলে ভেসে যায়। ফোয়ারার মতো জল বেরোতে দেখা গিয়েছে কয়েকটি জায়গায়। সেখানে গিয়ে দেথা যায়, জলের পাইপ ফেটে গিয়েছে। এই ঘটনায় প্রশাসনকে কটাক্ষ করে বিরোধীরা বলছেন, নতুন প্রকল্প শুরু হয়েছে যার নাম ‘দুয়ারে ফোয়ারা’।

কেন জলের পাইপ ফাটল?‌ জানা গিয়েছে, আজ, রবিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখা যায় গোটা এলাকা জলে থই থই করছে। ফোয়ারার মত জল বেরিয়ে আসছে মাটি থেকে। আর তা ঘটেছে ঝড়বৃষ্টির ফলে। এই ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দারা সমস্যায় পড়েছেন। ঘটনাটি পুরসভায় জানানো হয়েছে। কিন্তু রবিবার ছুটির দিন হওয়ায় সমস্যা মিটবে কিনা তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে।

ঠিক কী বলছেন বিরোধীরা?‌ এই ঘটনা নিয়ে সিপিআইএম নেতা প্রভাতকুসুম রায় বলেন, ‘এটাই এই রাজ্যের উন্নয়ন। কেউ দেখার নেই। পাইপ ফেটে যায়। কোনওরকম দায়সাড়া মেরামত করিয়ে রেখে দেয়। কয়েকদিন পর আবার পাইপ ফেটে যায়। কাটমানির লোভে পেটোয়া ঠিকাদার দিয়ে কাজ করানোর জন্যই একই সমস্যা বারবার দেখা যাচ্ছে। প্রশাসনের নজরদারির অভাবে নতুন প্রকল্প শুরু হয়েছে ‘দুয়ারে ফোয়ারা’। তবে এই ঘটনার পর পরিদর্শনে যান বাঁকুড়া উপ–পুরপ্রধান হিরণ চট্টরাজ। তিনি বলেন, ‘পুরো বিষয়টি দুর্ঘটনা! জল সরবরাহ বন্ধ করা হয়েছে। দ্রুত মেরামতির কাজ শুরু হবে।’

বন্ধ করুন