বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > রেশন কার্ড না থাকলেও প্রতি মাসে ফ্রিতে ৫ কেজি খাদ্য সামগ্রী,বিশেষ প্রকল্প বাংলার
 ফাইল ছবি : রয়টার্স  (Reuters)
 ফাইল ছবি : রয়টার্স  (Reuters)

রেশন কার্ড না থাকলেও প্রতি মাসে ফ্রিতে ৫ কেজি খাদ্য সামগ্রী,বিশেষ প্রকল্প বাংলার

  • অর্থ দপ্তরের অনুমোদন পাওয়ার পর এই প্রকল্পের জন্য পরিযায়ীদের তথ্য সংগ্রহ করে প্রাথমিক কাজ শুরু করেছে খাদ্য ও খাদ্য সরবরাহ বিভাগ।

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের শ্রমদপ্তরের তরফে পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য 'পরিযায়ী সহায়' প্রকল্প চালু করা হল। পরিযায়ী শ্রমিকদের মুখে খাবার তুলে দিতেই প্রকল্পের সূচনা। প্রকল্পের অধীনে পরিযায়ী শ্রমিকদের তথ্য সংগ্রহ করা হবে, তারপর তাদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী। দুর্গা পুজোর আগেই তথ্য সংগ্রহ করে পুরোদমে প্রকল্পেরকাজ শুরুর লক্ষ্যমাক্রা স্থির করেছে রাজ্য সরকার।

জানা গিয়েছে, 'পরিযায়ী সহায়' প্রকল্পের আওতায় কোনও পরিযায়ী শ্রমিক বা তার পরিবারের সদস্যদের কাছে রেশন কার্ড না থাকলেও তারা বিনামূল্যে খাদ্য সামগ্রী পাবেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে। এর জন্য রাজ্য সরকার রেশন কার্ড বিহীন পরিযায়ীদের কুপন দেবে। প্রতি মাসে এই কুপন দেখিয়েই রেশন দোকান থেকে বিনামূল্যে দেওয়া হবে খাদ্য সামগ্রী।

অর্থ দপ্তরের অনুমোদন পাওয়ার পর এই প্রকল্পের জন্য পরিযায়ীদের তথ্য সংগ্রহ করে প্রাথমিক কাজ শুরু করেছে খাদ্য ও খাদ্য সরবরাহ বিভাগ। এই প্রকল্পের আওতায় পরিযায়ী শ্রমিক এবং তার পরিবারের সদস্যরা প্রতি মাসে পাঁচ কেজি করে বিনামূল্যে খাদ্য সামগ্রী পাবেন। এই সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের চিহ্নিত করার জন্য পর্যবেক্ষক নিয়োগ করেছে শ্রম দফতর। এই পর্যবেক্ষকরা ব্লকে ব্লকে পরিযায়ী শ্রমিকদের চিহ্নিত করার কাজ চালাচ্ছেন।

এদিকে দুয়ারের রেশন প্রকল্প নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হয় জনস্বার্থ মামলা। মামলাকারীদের তরফে আদালতে অভিযোগ করা হয়েছে, রাজ্য সরকার দুয়ারে রেশন প্রকল্প নিয়ে কোনওরকম গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেনি। এমনকি বাড়িতে গিয়ে রেশন পৌঁছে দেওয়া আইন বিরুদ্ধ বলে অভিযোগ করেছেন মামলাকারীরা। পাশাপাশি পরিকাঠামোগত ভাবে পিছিয়ে থাকায় রেশন ডিলারদের পক্ষে বাড়ি বাড়ি গিয়ে মাল পৌঁছে দেওয়াও সম্ভব নয় বলে দাবি করা হয়েছে।

 

বন্ধ করুন