বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'টিকা নিতে নয়, করোনার চাষ করতে এসেছি' শিলিগুড়িতেও টিকার লাইনে ক্ষোভ বাসিন্দাদের
টিকা নিতে এসে চূড়ান্ত ভোগান্তি (ফাইল ছবি)
টিকা নিতে এসে চূড়ান্ত ভোগান্তি (ফাইল ছবি)

'টিকা নিতে নয়, করোনার চাষ করতে এসেছি' শিলিগুড়িতেও টিকার লাইনে ক্ষোভ বাসিন্দাদের

  • দীর্ঘ অপেক্ষার পরেও মেলেনি টিকা

ভোররাত থেকে দীর্ঘ লাইন। একটা ভ্যাকসিনের জন্য। এরপরেও ভ্যাকসিন না পেয়ে ফিরে যাচ্ছেন বাসিন্দারা। রাজ্যের জেলায় জেলায় এটাই সার্বিক চিত্র। সেই ছবি শিলিগুড়িতেও। মঙ্গলবার শিলিগুড়ির ডাবগ্রামের মাতৃসদনের সামনে বেলা যত বেড়েছে ততই এই লাইন দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হয়েছে। কিন্তু বাসিন্দাদের অভিযোগ দীর্ঘ অপেক্ষার পরেও ভ্যাকসিনের দেখা মেলেনি। এরপরই ক্ষোভে ফেটে পড়েন বাসিন্দারা। বাসিন্দাদের অভিযোগ, ভোররাত থেকে লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন অনেকেই। অনেকে অসুস্থ শরীরেও লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন। কিন্তু প্রচন্ড গরমের মধ্যে দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন কয়েকজন। কিন্তু এরপরেও স্বাস্থ্যদফতরের কারোর দেখা মেলেনি। এরপরই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বাসিন্দারা। তখনই এক মহিলা বলেন,' আমরা করোনার টিকা নিতে নয়, এখানে মনে হচ্ছে করোনার চাষ করতে এসেছি।ঘণ্টার পর ঘণ্টা ভ্যাকসিনের লাইনে দাঁড়িয়ে রয়েছি। কিন্তু ভ্যাকসিন তো দূরের কথা, স্বাস্থ্য দফতরের লোকজনেরই দেখা নেই। '

এরপরই এলাকায় তুমুল বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বাসিন্দারা। বাসিন্দাদের একাংশের অভিযোগ 'কোথাও কোনও ব্যবস্থা নেই। প্রচণ্ড গরমে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। বয়স্ক ব্যক্তিরাও লাইনে রয়েছেন। দূরত্ব বিধিও মানা যাচ্ছে না। সংক্রমণের আশঙ্কাও থেকে যাচ্ছে।’ এদিকে পরিস্থিতি বিগড়ে যাচ্ছে এটা আঁচ করেই এদিন পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। তারা কোনওরকমে বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু বাসিন্দাদের দাবি, কেন বার বার এই ভোগান্তির মধ্যে ফেলা হচ্ছে। পরে অবশ্য পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হয়। 

বন্ধ করুন