বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ঠান্ডা-গরমের লুকোচুরি, আবহাওয়ার খামখেয়ালিপনায় প্রশ্ন, শীত আসবে কত দিনে?
রবিবারে কলকাতার আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতে পারে বলে পূর্বাভাস আবহাওয়া দফতরের।
রবিবারে কলকাতার আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতে পারে বলে পূর্বাভাস আবহাওয়া দফতরের।

ঠান্ডা-গরমের লুকোচুরি, আবহাওয়ার খামখেয়ালিপনায় প্রশ্ন, শীত আসবে কত দিনে?

  • দিনের সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ইতিমধ্যেই বেড়েছে আগের সপ্তাহের তুলনায়।

দেখা মিলছে না শীতের। আসব, আসব করেও আসতে পারছে না শীত। কুয়াশা থাকলেও বাড়ছে গরম। কয়েক সপ্তাহ আগে বাতাসে হিমেল স্পর্শ বদলে গিয়েছে হালকা গরমে। আবহাওয়া দফতরও শীত নিয়ে কোনও পূর্বাভাস দেয়নি। এরই মধ্যে আকাশের মুখ ভার হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। আর এতেই কলকাতা ও সংলগ্ন এলাকার আবহাওয়া পরিবর্তনের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। দিনের সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ইতিমধ্যেই বেড়েছে আগের সপ্তাহের তুলনায়। তা আরও কিছুটা বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

আজ শনিবার কলকাতা ও সংলগ্ন এলাকার আকাশ প্রধানত পরিষ্কার থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। শহরের সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা যথাক্রমে ৩১ ডিগ্রি এবং ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে থাকবে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া অফিস। গতকাল কলকাতা ও তৎসংলগ্ন অঞ্চলে শুক্রবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩০.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি বেশি। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৯.১ ডিগ্রি, যা স্বাভাবিক। এদিকে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে আপাতত বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই, শুষ্ক আবহাওয়াই থাকবে। উত্তরবঙ্গেও বিশেষ কোনও পরিবর্তনের কথা জানায়নি আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, ফের রাজ্যে বৃষ্টির ভ্রূকুটি রয়েছে। উলল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই আন্দামান সাগরে নিম্নচাপের সৃষ্টি শীতের আমেজকে থমকে দিয়েছিল বঙ্গে। এমনকি চলতি সপ্তাহের প্রথমদিকে দু-এক পশলা বৃষ্টির আশঙ্কা ছিল। বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া সেই নিম্নচাপ অন্ধ্রপ্রদেশ এবং তামিলনাড়ু উপকূলের দিকে এগিয়ে যাওয়ার কথা। এর জেরেই প্রচুর জলীয় বাস্প ঢুকবে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। এই আবহে হাওয়া অফিস বলছে রবিবার থেকে কলকাতা এবং পার্শ্বর্তী অঞ্চলে ফের আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতে পারে।

এদিকে ভোরের দিকে ঘন কুয়াশার জের এতটাই যে দূরপাল্লার স্পেশাল ট্রেন বাতিল করতে হয়েছে। কুয়াশার ঘনত্ব থাকলেও সেই শিরশিরানি নেই। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়াতে শিরশিরানির বদলে হালকা গরম অনুভব হচ্ছে শহরবাসীর। রবিবাসরীয় ইডেনে ভারত-নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট ম্যাচে শিশির শঙ্কা রয়েছে। পাশাপাশি বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিও হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।

 

বন্ধ করুন