বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > এবার বিডিও, এসডিও, এডিএমদের ওপর নজরদারি শুরু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ফাইল ছবি
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ফাইল ছবি

এবার বিডিও, এসডিও, এডিএমদের ওপর নজরদারি শুরু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

  • সম্প্রতি আমফানের ক্ষতিপূরণ বিলি নিয়ে শাসকদলের নেতাকর্মীর মতোই দুর্নীতিতে নাম জড়ায় প্রশাসনিক এই আধিকারিকদের। সেই অভিযোগের কথা নবান্ন পর্যন্ত পৌঁছয়।

পশ্চিমবঙ্গের ২৩টি জেলার প্রশাসনিক কার্যকলাপ সামলান ৩৪৪ জন বিডিও, ৬৬ জন এসডিও ও ৬৯ জন এডিএম। এবার এদের প্রত্যেকের ওপর সরাসরি নজর রাখবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

কিন্তু কেন এত কড়াকড়ি?‌ সম্প্রতি আমফানের ক্ষতিপূরণ বিলি নিয়ে শাসকদলের নেতাকর্মীর মতোই দুর্নীতিতে নাম জড়ায় প্রশাসনিক এই আধিকারিকদের। সেই অভিযোগের কথা নবান্ন পর্যন্ত পৌঁছয়। তাই এবার জেলা প্রশাসনের সব স্তরের কর্তার কাজের মূল্যায়ন করবেন বলে ঠিক করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

জানা গিয়েছে, এই কাজ চলবে বছরভর। এসডিও, বিডিও ও এডিএমদের রোজকার কাজের বিবরণী আসবে নবান্ন। তার পর সেগুলি খতিয়ে দেখবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কোনও গাফিলতি চোখে পড়লেই ব্যবস্থা নেবেন তিনি।

সম্প্রতি ফের আরেক দফায় আমফানের ক্ষতিপূরণের জন্য আবেদন জানানোর সুযোগ দেয় পশ্চিমবঙ্গ সরকার। দু’‌দিনে রাজ্যের ৬ জেলা থেকে প্রায় ৫ লক্ষ ৭০ হাজার আবেদন জমা পড়ে। ঝাড়াই–বাছাই করে আজ, ১৪ অগস্ট আবেদনকারীদের তালিকা প্রকাশ করা হবে জেলাশাসকের দপ্তর, বিডিও এবং পুরসভা কার্যালয়ে। ১৯ অগস্ট এর চূড়ান্ত তালিকা দেওয়া হবে ‘‌এগিয়ে বাংলা’‌ ওয়েবসাইটে। তাই আবেদনকারী বাছাইয়ের কাজটা যাতে সঠিকভাবে হয় তার জন্য প্রশাসনিক আধিকারিকদের সাবধান করতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী বলে নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে।

বন্ধ করুন