বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কোভিড আবহে অভিভাবকরাই স্কুল খোলার পক্ষে মত দিচ্ছেন না, দাবি শিক্ষামন্ত্রীর
ব্রাত্য বসু। ফাইল ছবি
ব্রাত্য বসু। ফাইল ছবি

কোভিড আবহে অভিভাবকরাই স্কুল খোলার পক্ষে মত দিচ্ছেন না, দাবি শিক্ষামন্ত্রীর

  • আজ থেকেই আইটিআই ও পলিটেকনিক কলেজগুলিতে প্র্যাকটিক্যাল ক্লাস চালু হয়ে গেল।

করোনা সংক্রমণ কমেছে অনেকটাই। এই আবহে রাজ্যে ভবানীপুর আসনে উপনির্বাচনের অনুমতিও দেওয়া হয়েছে নির্বাচন কমিশনের তরফে। এরই মাঝে বিভিন্ন স্তর থেকে দাবি উঠেছে যাতে স্কুল খোলা হয়। এই বিষয়ে রবিবার শিক্ষক দিবসে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে প্রশ্ন করা হলে সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, 'এখন স্কুল খোলা ঠিক হবে কি না, সেই বিষয়ে অভিভাবক এবং শিক্ষাবিদদের মত জানতে সমীক্ষা চালাচ্ছে সরকার। আপাতত সেই সমীক্ষায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া গিয়েছে। অনেক অভিভাবকই কিন্তু এই করোনা পরিস্থিতিতে স্কুল না-খোলার পক্ষে মত দিয়েছেন।'

উল্লেখ্য, এর আগে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন যে কোভিড পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে দুর্গাপুজোর পর খোলা হতে পারে স্কুল। এদিকে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকা স্কুলগুলিতে পরিকাঠামো কি ঠিক রয়েছে? দুর্গাপুজোর পর স্কুল খোলা কি সম্ভব হবে? এই সব প্রশ্নের জবাব পেতেও সমীক্ষা চালানো হচ্ছে শিক্ষা দফতরের তরফে। জানা গিয়েছে, ধাপে ধাপে স্কুল খোলা নিয়ে প্রাথমিক ও মধ্যশিক্ষা পর্ষদ, উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের প্রধানদের সঙ্গে গত বৃহস্পতিবার রাজ্যের শিক্ষাসচিবের কথা হয়েছে।

এদিকে আজ থেকেই আইটিআই ও পলিটেকনিক কলেজগুলিতে প্র্যাকটিক্যাল ক্লাস চালু হয়ে গেল। কিন্তু কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় খোলা নিয়ে রয়েছে ধন্দ। উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে গত শনিবারও কলেজ স্কোয়ারে পশ্চিমবঙ্গ কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির তরফে বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়। উচ্চশিক্ষা দফতরের কর্তারা এই প্রসঙ্গে জানান, সমীক্ষা চলছে। সমীক্ষার ফল এলে এই বিষয়ে চিন্তাভাবনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বন্ধ করুন