নৈহাটি বিস্ফোরণে ‘বিশেষ জোরালো তদন্ত’ চাইলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।
নৈহাটি বিস্ফোরণে ‘বিশেষ জোরালো তদন্ত’ চাইলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

নৈহাটি বিস্ফোরণে ‘বিশেষ জোরালো তদন্ত’ চেয়ে টুইট ধনখড়ের

  • নৈহাটিতে অবৈধ বাজি কারখানায় বিস্ফোরণের বিশেষজ্ঞ দ্বারা জোরদার তদন্তের দাবি জানালেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।
  • শুক্রবার বিস্ফোরণের পরে ঘটনার এনআইএ তদন্ত দাবি করেন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং।
  • সিপিএম পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম অভিযোগ করেছেন, বোমার কারিগরদের আড়াল করার চেষ্টা করছে রাজ্য সরকার।

নৈহাটিতে অবৈধ বাজি কারখানায় বিস্ফোরণের জেরে চার জনের মৃত্যুর বিশেষ জোরদার তদন্তের দাবি জানালেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। শনিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ট্যাগ করে টুইট বার্তায় ঘটনার জবাবদিহি চেয়ে আর্জি জানালেন রাজ্যপাল।

এ দিন সকালে তাঁর টুইটে ধনখড় লেখেন, ‘নৈহাটির মসজিদপাড়ায় কারখানায় বিস্ফোণে একাধিক মৃত্যুতে আমি শোকাহত। ওই কারখানায় বেআইনি ভাবে দেশি বোমা তৈরি হত বলে যে অভিযোগ উঠেছে, তার বিশেষ জোরালো তদন্ত প্রয়োদন। প্রশাসনিক স্তরে দায়বদ্ধতা নির্দিষ্ট করা দরকার।’

রাজ্যপালের টুইটের উত্তরে রাজ্যের সংসদীয় মন্ত্রী তাপস রায় বলেন, ‘ওঁরা (কেন্দ্রীয় সরকার) যা খুশি চাইতে পারেন, এমনকি সিবিআই তদন্তও চাইতে পারেন। ওঁরা এগিয়ে যেতে পারলে যান। আমাদের তাতে কোনও সমস্যা নেই।’

শুক্রবার নৈহাটিতে বিস্ফোরণের পরে ঘটনার এনআইএ তদন্ত দাবি করেন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। তাঁর অভিযোগ, বাজির আড়ালে দেশি বোমা তৈরি হত কারখানায়।

সাংসদের দাবির জবাবে তৃণমূল মন্ত্রী তথা দলের জেলা সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক কটাক্ষ করেন, ‘উনি বরং আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে এফবিআই তদন্তের জন্য বলুন।’

শনিবার একই অভিযোগ তুলে সিপিএম পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম অভিযোগ করেন, বোমার কারিগরদের আড়াল করার চেষ্টা করছে রাজ্য সরকার। তিনি বলেন, ‘নিরাপত্তার অভাবের মধ্যে বাস করছেন পশ্চিমবঙ্গের মানুষ।’

বন্ধ করুন