বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > করোনার প্রতিষেধক আবিষ্কার করেছেন, দাবি পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রীর!
প্রাণীসম্পদ বিকাশ মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ
প্রাণীসম্পদ বিকাশ মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

করোনার প্রতিষেধক আবিষ্কার করেছেন, দাবি পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রীর!

  • এর পর ডাক্তারবাবুর সামনেই মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ সাংবাদিকদের বলেন, ‘তুলসিপাতা যেমন পুজোয় লাগে তেমন মানুষের শরীরের জন্যও তা উপকারী।’

করোনার প্রতিষেধক আবিষ্কার করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভার সদস্য। অন্তত এমনই দাবি পশ্চিমবঙ্গের প্রাণীসম্পদ বিকাশ মন্ত্রী স্বপন দেবনাথের। সোমবার এক অনুষ্ঠানে যোগদান করে এই দাবি করেন মন্ত্রী। যা শুনে বাক্যহারা হয়ে গিয়েছেন চিকিৎসক ও গবেষকরা। 

সোমবার কাটোয়া হাসপাতাল চত্বরে ছিল ভেষজ গাছ লাগানোর একটি কর্মসূচি। স্থানীয় একটি সংস্থার উদ্যোগে আয়োজিত ওই কর্মসূচিতে হাজির ছিলেন কালনা মহকুমা হাসপাতালের সুপার কৃষ্ণচন্দ্র বড়াই। সেখানে বিভিন্ন ভেষজ গাছ নিজে হাতে লাগান মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। 

এর পর ডাক্তারবাবুর সামনেই মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ সাংবাদিকদের বলেন, ‘তুলসিপাতা যেমন পুজোয় লাগে তেমন মানুষের শরীরের জন্যও তা উপকারী।’ এখানেই থামেননি তিনি। এর পর স্বপনবাবুর দাবি, ‘তুলসিপাতা করোনার প্রতিষেধকের কাজ করে। তাই সবার তুলসি পাতার রস খাওয়া উচিত।’

তাঁর সামনে মন্ত্রীর এমন আজব মন্তব্যে অস্বস্তিতে পড়েন কালনা হাসপাতালের সুপার কৃষ্ণচন্দ্র বড়াই। তিনি বলেন, ‘তুলসি শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তবে এতে করোনার প্রতিষেধকের গুণ রয়েছে বলে এখনো কোনও প্রমাণ মেলেনি।’

বিভিন্ন সময় বিজেপি নেতাদের করা নানা অবৈজ্ঞানিক দাবি দাওয়া নিয়ে কটাক্ষ করতে শোনা যায় তৃণমূল। এদিন স্বপনবাবু বোঝালেন, এব্যাপারে তৃণমূলের নিজের ঘরও একেবারে মণিমানিক্যহীন নয়। 

 

বন্ধ করুন