বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ফের বিদ্রোহ তৃণমূলে, অনুব্রত অধীনে কাজ করব না, স্পষ্ট বলে দিলেন সিদ্দিকুল্লাহ
সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী। 
সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী। 

ফের বিদ্রোহ তৃণমূলে, অনুব্রত অধীনে কাজ করব না, স্পষ্ট বলে দিলেন সিদ্দিকুল্লাহ

  • এদিন সিদ্দিকুল্লাহ সাহেব বলেন, ‘কেউ কাউকে দায়িত্ব দিলে দেবেন। তিনি দাঁড়াবেন, তিনি জেতাবেন। আমি ওর অনুগত হয়ে কাজ করতে প্রস্তুত নই।

ফের বিদ্রোহ তৃণমূলে। এবার দলের দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতা অনুব্রত মণ্ডলের অধীনে কাজ করতে অস্বীকার করে প্রকাশ্যে বিদ্রোহ ঘোষণা করলেন মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী। মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খুলে তিনি বলেন, গত নির্বাচনে ওরা কী করেছে সেটাও মানুষ জানে, সংবাদমাধ্যম জানে। আমি ঝুঁকি নিয়ে হাত পোড়াতে যাব না।

অনুব্রত মণ্ডলকে পূর্ব বর্ধমানের মঙ্গলকোট ব্লকের দলের সংগঠন দেখভালের দায়িত্ব দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই বিধানসভা কেন্দ্রেরই বিধায়ক সিদ্দিকুল্লাহ সাহেব। এদিন সরাসরি অনুব্রতর বিরুদ্ধে সুর চড়ান তিনি। জানান স্বাধীন ভাবে মঙ্গলকোটে কাজ করতে চান।

এদিন সিদ্দিকুল্লাহ সাহেব বলেন, ‘কেউ কাউকে দায়িত্ব দিলে দেবেন। তিনি দাঁড়াবেন, তিনি জেতাবেন। আমি ওর অনুগত হয়ে কাজ করতে প্রস্তুত নই। এটা আমি পরিষ্কার বলে দিলাম। আমি ওর মেজাজ চিনি। গত নির্বাচনে ও কী করেছে সেটাও মানুষ জানে, সংবাদমাধ্যম জানে। আমি ঝুঁকি নিয়ে হাত পোড়াতে যাব না। আমি মঙ্গলকোটে গেলে স্বাধীনভাবে কাজ করবো’। 

অনুব্রতকে সিদ্দিকুল্লাহ কটাক্ষ, ‘উনি বড় খেলোয়াড়। আমি ওই পর্যায়ের খেলোয়াড় নই। মারামারি করতে আমি চাই না। কেউ মারামারি করুক এটাও আমি চাই না’।

 বিধানসভা নির্বাচনের আগে দিকে দিকে তৃণমূলে বিদ্রোহ দেখা দিয়েছে। দলের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে মুখ খুলছেন একের পর এক বিধায়ক। সেই তালিকায় নাম যোগ হল সিদ্দিকুল্লা চৌধুরীরও।

 

বন্ধ করুন