বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > রিয়ার গ্রেফতারির আঁচ পুরুলিয়ায়, ঐতিহ্যবাহী চক্রবর্তী বংশের এই পরিণতিতে ওঁরা অবাক
গ্রেফতারির পর রিয়া চক্রবর্তী। ছবি সৌজন্য : এএনআই
গ্রেফতারির পর রিয়া চক্রবর্তী। ছবি সৌজন্য : এএনআই

রিয়ার গ্রেফতারির আঁচ পুরুলিয়ায়, ঐতিহ্যবাহী চক্রবর্তী বংশের এই পরিণতিতে ওঁরা অবাক

  • বছর কুড়ি আগে নাকি রিয়া তাঁদের দুর্গাপুজোয় বাবার সঙ্গে তুন্তুড়িতে এসেওছিলেন। তাই ‘‌গ্রামের মেয়ে’‌র এই পরিণতিতে অনেকটাই অবাক পাড়া–প্রতিবেশীরা।

রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করেছে?‌ মানতেই পারছেন না ওঁরা। পুরুলিয়ার বাঘমুণ্ডি থানা এলাকায় ছোট গ্রাম তুন্তুড়ি। মাদকযোগে যে বলিউড অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে জেল খাটতে হবে তা যেন ভাবনারও অতীত এই গ্রামের বাসিন্দাদের কাছে। কেন?‌ কারণ, পশ্চিমবঙ্গের বাইরে রিয়ার জন্ম হলেও তাঁদের পূর্বপুরুষ এক সময়ে এই গ্রামেই বাস করতেন। বছর কুড়ি আগে নাকি রিয়া তাঁদের দুর্গাপুজোয় বাবার সঙ্গে তুন্তুড়িতে এসেওছিলেন। তাই ‘‌গ্রামের মেয়ে’‌র এই পরিণতিতে অনেকটাই অবাক পাড়া–প্রতিবেশীরা।

অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুরহস্যের জটে পড়েছেন রিয়া, তা শুনেছিলেন তুন্তুড়ির বাসিন্দা ও পুরুলিয়ার প্রাক্তন ফরওয়ার্ড ব্লক সাংসদ বীর সিং মাহাতো। কিন্তু মাদক–কাণ্ডে এনসিবি–র হাতে রিয়ার গ্রেফতারির ব্যাপারটায় খানিক বিরক্ত তিনি। ‘‌আনন্দবাজার’‌–কে তিনি বলেছেন, ‘‌তুন্তুড়ির চক্রবর্তী পরিবারের এক কালে বিরাট নামডাক ছিল। তাঁদের চালু করা দুর্গাপুজো কয়েকশো বছরের পুরনো। রিয়ার পূর্বপুরুষ আইনজীবী রামময় চক্রবর্তীর দেওয়া জমিতেই স্কুল, স্বাস্থ্যকেন্দ্র তৈরি হয়েছে। রিয়ার নামে যে সব অভিযোগ শুনছি, তা তাঁদের পরিবারের ঐতিহ্যের সঙ্গে মানায় না। বিশ্বাস করতে পারছি না। তদন্তের দিকে আমাদের নজর রয়েছে।’

আত্মিক যোগাযোগ না থাকলেও পরিবারের নাড়ির টান তো রয়েছেই। তাই হয়তো চক্রবর্তী পরিবারের এ হেন পরিণতিতে কিছুটা অপ্রস্তুত ও বিরক্ত লালমাটির দেশ পুরুলিয়া।

বন্ধ করুন