বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‌আমরা চলি সমুখপানে, কে আমাদের বাঁধবে— ফের জল্পনা উস্কে দিলেন শুভেন্দু অধিকারী
পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। ফাইল ছবি
পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। ফাইল ছবি

‌আমরা চলি সমুখপানে, কে আমাদের বাঁধবে— ফের জল্পনা উস্কে দিলেন শুভেন্দু অধিকারী

  • ইদানিং দলের অনুষ্ঠান থেকে বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে বেশি দেখা যাচ্ছে শুভেন্দু অধিকারীকে। এদিন ঝাড়গ্রামের নেতাইয়ে অনুষ্ঠানটিও সেরকমই ছিল।

জল্পনার আর এক নাম শুভেন্দু অধিকারী। বিগত কয়েকদিনের বিভিন্ন ঘটনায় এ কথা বলা যেতেই পারে। সম্প্রতি করোনায় আক্রান্ত হন রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী। আপাতত এখন তিনি একেবারে সুস্থ। ধীরে ধীরে বিভিন্ন জনসভা, বৈঠকে আসতে শুরু করেছেন শুভেন্দু। রবিবার তেমনই একটি জনসভায় ফের জল্পনা উস্কে দিলেন তিনি।

ইদানিং দলের অনুষ্ঠান থেকে বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে বেশি দেখা যাচ্ছে শুভেন্দু অধিকারীকে। এদিন ঝাড়গ্রামের নেতাইয়ে অনুষ্ঠানটিও সেরকমই ছিল। সেখানে নিজেকে নেতাইয়ের সেবক হিসেবে উল্লেখ করেন শুভেন্দু। তিনি এদিন বেশ দৃঢ়ভাবে বলেন, ‘‌আমার লক্ষ্য থেকে, কর্ম থেকে, দায়বদ্ধতা থেকে কেউ কোনও দিন আমাকে সরিয়ে দিতে পারেনি। ভবিষ্যতেও পারবে না।’‌

কিন্তু প্রশ্ন হল, শুভেন্দু অধিকারীর মতো একজন বলিষ্ঠ নেতাকে কেন কেউ তাঁর অবস্থান থেকে সরিয়ে ফেলতে চাইবে। রাজ্য রাজনীতিতে জল্পনা, শুভেন্দু কি নিজেই তৃণমূল থেকে সরে দাঁড়াতে চাইছেন!‌ যদিও দলের অন্দরে এ নিয়ে কোনও সদুত্তর এখনও পাওয়া যায়নি। এদিকে, এদিন রবীন্দ্রনাথের লেখা আউড়ে বলেন, ‘‌আমরা চলি সমুখপানে, কে আমাদের বাঁধবে, রইল যারা পিছুর টানে, কাঁদবে তারা কাঁদবে।’‌ বোঝাই যাচ্ছে, এগিয়ে যাওয়ার কথা বলেছেন শুভেন্দু। কিন্তু কোথায় যাবেন?‌ কারা পিছনে পরে থাকবে? এভাবেই জল্পনা আরও বাড়িয়েছেন রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু। উল্লেখ্য, এদিনও তিনি সভামঞ্চ থেকে সরাসরি কোনও রাজনৈতিক কথা বলেননি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম নেওয়া বা বরাবরের ‘‌তৃণমূল কংগ্রেস জিন্দাবাদ’‌ স্লোগানও শোনা যায়নি তাঁর মুখে।

বন্ধ করুন