বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘যা টাকা তুলেছি, TMC বিধায়ককে দিয়েছি’, দাবি আর্থিক কেলেঙ্কারিতে ধৃত আপ্তসহায়কের
প্রবীরের দাবি, তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক তাপস সাহা প্রায় ১০ কোটি টাকা লুঠ করেছেন। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে ফেসবুক)
প্রবীরের দাবি, তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক তাপস সাহা প্রায় ১০ কোটি টাকা লুঠ করেছেন। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে ফেসবুক)

‘যা টাকা তুলেছি, TMC বিধায়ককে দিয়েছি’, দাবি আর্থিক কেলেঙ্কারিতে ধৃত আপ্তসহায়কের

  • তেহট্টের তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়কের আপ্তসহায়ক প্রবীর দাবি করেন, তাপস প্রায় ১০ কোটি টাকা লুঠ করেছেন। সরকারি চাকরি এবং লাইসেন্স পাইয়ে দেওয়ার নাম করে অনেকের থেকে কোটি-কোটি টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে তেহট্টের বিধায়কের বিরুদ্ধে।

নিজে কোটি-কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন। অথচ তাঁকে ফাঁসিয়েছেন তেহট্টের তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক তাপস সাহা। এমনই অভিযোগ করলেন তাপসে আপ্তসহায়ক প্রবীর কয়াল। সঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি যা টাকা তুলেছি, পুরোটাই তাপস সাহাকে দিয়েছি।’

আর্থিক প্রতারণার মামলায় বুধবার প্রবীরের বাড়িতে তল্লাশি চালায় পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের দুর্নীতিদমন শাখার বিশেষ দল। সূত্রের খবর, প্রবীরের বাড়ি থেকে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ নথি উদ্ধার করা হয়েছে। বাড়িতে তল্লাশির পর প্রবীরকে তেহট্ট থানায় নিয়ে আসা হয়। সেখান থেকে বিধায়কের আপ্তসহায়ককে নিয়ে কলকাতার উদ্দেশে রওনা দেন রাজ্য পুলিশের দুর্নীতিদমন শাখার বিশেষ দলের আধিকারিকরা।

সেইসময় বিধায়কের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন প্রবীর। সরাসরি বিধায়কের দিকে আঙুল তুলে প্রবীর বলেন, ‘আমায় ফাঁসিয়েছেন তেহট্টের বিধায়ক তাপস সাহা। আর্থিক প্রতারণা করে আমায় জড়িয়ে দিয়েছেন। যা টাকা তুলেছি, পুরোটাই তাপস সাহাকে দিয়েছি।’ সেইসঙ্গে প্রবীর দাবি করেন, তাপস প্রায় ১০ কোটি টাকা লুঠ করেছেন। তবে কত টাকা তুলেছেন, সে বিষয়ে কিছু বলার আগেই তাঁকে গাড়িতে তুলে নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: ঘণ্টাচারেক ‘উধাও’, কোটি-কোটি টাকা প্রতারণার মামলায় কি গ্রেফতার তৃণমূল বিধায়ক?

উল্লেখ্য, সরকারি চাকরি এবং লাইসেন্স পাইয়ে দেওয়ার নাম করে অনেকের থেকে কোটি-কোটি টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে তেহট্টের বিধায়কের বিরুদ্ধে। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠিও দিয়েছেন অনেকে। তারপরই তাপসের আপ্তসহায়ক প্রবীর এবং প্রবীরের দুই সঙ্গী শ্যামল কয়াল ও সুনীল মণ্ডলকে গ্রেফতার করেছে রাজ্য পুলিশের দুর্নীতিদমন শাখা। যদিও তৃণমূল বিধায়কের দাবি, দলেরই একাংশ তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। সেইসঙ্গে প্রবীর তাঁর আপ্তসহায়ক নন বলে দাবি করেছিলেন বিধায়ক। যদিও বুধবার প্রবীর পালটা দাবি করেন, সাত বছর ধরে তাপসের আপ্তসহায়ক ছিলেন। এলাকার মানুষও তা জানেন।

বন্ধ করুন