বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দলের জন্য একযোগে হাজিরার লক্ষ্য, হোয়াটসঅ্যাপে মোটরবাইক গ্রুপ তৈরি করছে বিজেপি!
দলের জন্য একযোগে হাজিরার লক্ষ্য, হোয়াটসঅ্যাপে মোটরবাইক গ্রুপ তৈরি করছে বিজেপি! (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
দলের জন্য একযোগে হাজিরার লক্ষ্য, হোয়াটসঅ্যাপে মোটরবাইক গ্রুপ তৈরি করছে বিজেপি! (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

দলের জন্য একযোগে হাজিরার লক্ষ্য, হোয়াটসঅ্যাপে মোটরবাইক গ্রুপ তৈরি করছে বিজেপি!

  • এক ডাকে ১৫টি মোটরবাইক জড়ো করার লক্ষ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় গ্রুপ তৈরি করেছে বিজেপি বলে সূত্রের খবর।

ডিজিটাল ইন্ডিয়ার কথা বারবার বলে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এবার বিধানসভা নির্বাচনে বাংলা শাসক–বিরোধী সোশ্যাল মিডিয়া ও প্ল্যাটফর্মকে কাজে লাগিয়ে চলছে প্রচার। এবার দিন-রাত যে কোনও সময় এক ডাকে ১৫টি মোটরবাইক জড়ো করার লক্ষ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় গ্রুপ তৈরি করেছে বিজেপি বলে সূত্রের খবর।

ইতিমধ্যেই জলপাইগুড়ি জেলার প্রতি বুথে এমন গ্রুপ হয়েছে বলে খবর। প্রতিটি গ্রুপে মনিটারিং করার জন্য রয়েছে একজন করে বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ব্যক্তি। যাঁর কাজ হল—গ্রুপের সব সদস্যের সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে যোগাযোগ রাখা। প্রতিটি গ্রুপে ৬০ থেকে ১৫০ জন করে সদস্য রাখার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।

কারা এখানে সদস্য হবেন?‌ জানা গিয়েছে, যাঁদের মোটরবাইক রয়েছে তাঁদের গ্রুপে রাখা হচ্ছে। এখন বুথভিত্তিক হলেও জানুয়ারি মাস থেকে পাড়াভিত্তিক গ্রুপ হতে চলেছে। যাঁদের মোটরবাইক নেই, তাঁদেরও যুক্ত করা হবে। গ্রুপের উদ্দেশ্য একটিই, কোনও প্রয়োজন পড়লে একসঙ্গে যেন অনেকে জড়ো হয়ে যেতে পারেন।

বিজেপি সূত্রে খবর, যে কোনও মুহূর্তে যেন ন্যূনতম ১৫ জন জড়ো হতে পারে, সেই ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। কোনও গ্রুপেই ৪০ জনের কম সদস্য নেই। প্রয়োজন পড়লে এদের এলাকায় যেতে হবে, সেখান থেকে যাদের বাড়ি কাছে, তাদের ফোন করেও যেতে বলা হয়। গ্রুপের একজন বিশেষ পরিচালক রয়েছে। তিনিই ফোন করেন।

উত্তরকন্যা অভিযানে গিয়ে মৃত উলেন রায়ের বাড়িতে তৃণমূলের প্রতিনিধিরা আসছেন বলে বেশ কয়েকবার খবর ছড়িয়ে পড়ে। সেই খবর পেয়ে বিজেপি নেতারা তড়িঘড়ি মোটরবাইক–গ্রুপে বার্তা পাঠান। ২০টি থেকে ৩০টি মোটরবাইকে চেপে কর্মীরা জড়ো হয়ে পড়েছিল। এভাবেই বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিভিন্ন জেলায়, পাড়ায়, ব্লকে, পঞ্চায়েত এলাকায় মোটরবাইক–গ্রুপ থাকছে।

বন্ধ করুন