বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শুভেন্দু নাকি অন্য 'ভূমিপুত্র' মুখ্যমন্ত্রিত্বের দাবিদার? শাহের মন্তব্যে জল্পনা
একই মঞ্চে শাহ-শুভেন্দু। (ফাইস ছবি, সৌজন্য এএনআই)
একই মঞ্চে শাহ-শুভেন্দু। (ফাইস ছবি, সৌজন্য এএনআই)

শুভেন্দু নাকি অন্য 'ভূমিপুত্র' মুখ্যমন্ত্রিত্বের দাবিদার? শাহের মন্তব্যে জল্পনা

  • শুভেন্দু বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরই 'ভূমিপুত্র' মন্তব্য করেছেন শাহ।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজ্যের মাটিতে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন, ‘বাংলার মাটি থেকে উঠে আসা কোনও ভূমিপুত্রকেই বাংলার মুখ্যমন্ত্রী করা হবে।’‌ এখন প্রশ্ন, ‌কে সেই ভূমিপুত্র?‌ কার কথা এখানে বলতে চেয়েছেন অমিত শাহ?‌ যাঁকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী পদে দেখতে চায় বিজেপি?

বিজেপির ক্ষমতায় আসা যে নিশ্চিত, সেই দাবি রবিবার বোলপুরে করেছেন অমিত শাহ। প্রচুর ঢাকঢোল পিটিয়ে শাহের সভামঞ্চে শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগদান পর্ব সম্পন্ন হয়েছে শনিবার। সেখানে শাহ বলেছিলেন, ‘শুভেন্দু ভাইয়ের নেতৃত্বে তৃণমূল–সহ সব দলের ভালো লোকেরা যোগদান করছেন।’ তারপরেই মুখ্যমন্ত্রী প্রসঙ্গে শাহের মন্তব্য তাৎপর্যপূর্ণ।

এখন প্রশ্ন উঠছে, শুভেন্দুকেই কি মুখ্যমন্ত্রী মুখ করতে চাইছে বিজেপি? এই প্রস্তাব দিয়েই কী শুভেন্দুকে নিয়েছে গেরুয়া শিবির?‌‌ বিজেপি‌র একাংশের অবশ্য অভিমত, শুভেন্দু অধিকারী একটা মুখ। এমন মুখ বিজেপির কাছে নেই। তবে মেদিনীপুর জায়গাটার একটা ইতিহাস আছে। সেখান থেকে মুখ্যমন্ত্রী প্রার্থী করা হলে বিপুল ভোট পাওয়া সম্ভব। একইসঙ্গে বাংলার ক্ষমতায় আসাও হয়ে যাবে।

শুভেন্দু যে তৃণমূলে থাকাকালীনই মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিলেন, শনিবারই তেমন দাবি করেছেন তৃণমূলের লোকসভার সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। মেদিনীপুর থেকে কলকাতায় ফেরার পথে বিজেপি‌র অন্য শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে শুভেন্দুকেও তাঁর হেলিকপ্টারে ডেকে নেন শাহ। এমনকী রাতে বিজেপি’‌র উচ্চ–পর্যায়ের সাংগঠনিক বৈঠকেও শুভেন্দুর প্রবেশাধিকার ছিল।

সম্ভাব্য মুখ অর্থাৎ মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শুভেন্দুর নাম নিয়ে প্রশ্নে শাহ কিন্তু আমল দিতে চাননি। শুভেন্দুও প্রকাশ্যে কিছু বলেননি। তবে শারীরিক ভঙ্গিতে এবং ঘটনাপ্রবাহ দেখে এমন মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। সাংবাদিক বৈঠকে তাঁকে প্রশ্ন করা হয়, শুভেন্দু বিজেপি যোগ দেওয়ার পর দিনই আপনি বাংলার মাটি থেকে উঠে আসা কোনও ভূমিপুত্রকে মুখ্যমন্ত্রী করার কথা বলছেন। এটা কি কোনও ইঙ্গিত? তিনি বলেন, ‘আমি কারও নাম বোঝাতে চাইনি। মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন, তা ঠিক করবে বিজেপি‌র সংসদীয় বোর্ড।’

উল্লেখ্য, তৃণমূলের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হওয়ার পরে শুভেন্দু বারবার নিজেকে ‘ভূমিপুত্র’ হিসেবেই তুলে ধরেছেন। কিন্তু শুভেন্দুর যোগদান এবং নারদ–কাণ্ডের সঙ্গে যোগসূত্র রয়েছে। এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ব্যাখ্যা দিয়েছেন, ‘কারও বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ থাকলে বিজেপিতে এলেই মাফ হয়ে যায় না। কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নন।’

বন্ধ করুন